৯ বছর অপেক্ষার পর হরিপুরে আ.লীগের সম্মেলন

95

আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সর্বশেষ ২০১৩ সালে হয়েছিল। প্রতি তিন বছর পর সম্মেলন করার কথা থাকলেও নানা টানাপোড়েনে গত নয় বছরেও সেই সম্মেলনটি হয়নি। অবশেষে সোমবার (১৮ জুলাই) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দীর্ঘদিনের অপেক্ষা শেষে বহু আকাঙিক্ষত এ সম্মেলনকে ঘিরে প্রার্থীদের মাঝে বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা। দলীয় সূত্রে জানা যায় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে মোট ২৬১ জন কাউন্সিলর থাকবেন। তাদের মাধ্যমিক হরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি গঠন করা হবে।

উপজেলা কমিটির সভাপতি পদে তিনজন আর সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীরা সংখ্যা তিন জন। পদ প্রত্যাশীদের অনুসারী ও শুভাকাঙ্খিরা পছন্দের প্রার্থীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণায় সরব রয়েছেন। উপজেলা আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিয়াউর হাসান মুকুল, সাবেক সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শামীম ফেরদৌস টগর ও আবুল কাইয়ুমকে নিয়ে তৃনমূলের নেতাকর্মীদের আগ্রহ চোখে পড়ার মতো।

সাধারণ সম্পাদক পদে পদ প্রত্যাশীরা হলেন, উপজেলা আ.লীগের বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি এস এম আলমগীর, জেলা আ.লীগের সদস্য ও উপজেলা আলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোজাফফর আহমেদ মানিক, যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম রিপন।

হরিপুর উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নগেন কুমার পাল এর সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন, সাবেক মন্ত্রী ও আ.লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ঠাকুরগাঁও এক আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, বাংলাদেশ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক।

সম্মেলনটি উদ্বোধন করবেন, ঠাকুরগাঁও জেলা আ.লীগের সভাপতি মো: সাদেক কুরাইশী। গেস্ট অব অনার হিসেবে থাকবেন, ঠাকুরগাঁও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায়।

বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন, পার্বত্য চট্রগ্রাম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, আলহাজ্ব মো: দবিরুল ইসলাম এমপি, বাংলাদেশ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি অ্যাড্‌ভোকেট্‌ সফুরা বেগম রুমি, বাংলাদেশ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাড্‌ভোকেট্‌ হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া।

সভাপতি পদ প্রত্যাশী জিয়াউর হাসান মুকুল বলেন, দীর্ঘ দিন উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছি। দলের যেকোন দুঃসময়ে ছিলাম এবং আমৃত্যু থাকবো। যদি তৃনমূলের নেতাকর্মীরা মনে করে আমি থাকলে উপজেলা আ.লীগের জন্য মঙ্গলজনক হবে তাহলে আমি বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করার বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী আনোয়ারুল ইসলাম রিপন বলেন, তৃনমূলের নেতাকর্মীদের সাথে আমার সম্পর্কও ভালো। জননেত্রী শেখ হাসিনা মাদক সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমের সাথে সবসময় আমার অবস্থান সু-দৃঢ় ছিলো, আশা করছি কাউন্সিলররা আমাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করবে।

আরেক সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী এস এম আলমগীর বলেন, আমি সবসময় তৃণমূলের নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজনীতি করেছি। দলের এবং নেতাকর্মীদের দুঃসময়ে পাশে ছিলাম। সরাসরি ভোটে আমি সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হওয়ার বিষয়ে শতভাগ আশাবাদী। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশী অ্যাডভোকেট মোজাফফর আহমেদ মানিক বলেন, আমি দীর্ঘসময় যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করেছি তাই অগ্রাধীকার ভিত্তিতে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব আমি পাওয়ার কথা। এখন কাউন্সিলররা আশা করি আমাকে সেভাবে মুল্যায়ন করবে।

আ.লীগের নেতা কর্মীরা জানান, দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে গত ৯ বছরে ধরে দলের সম্মেলন হয়নি। এতে দল ঝিমিয়ে পড়েছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সম্মেলনটি হবে কি না, তা নিয়ে দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যেই রয়েছে সংশয়।

তবে কাউন্সিলে দলীয় আদর্শে বিশ্বাসী ত্যাগী আর নিবেদিতদের স্থান দিতে আহবান জানিয়েছেন তৃণমূল কর্মীরা। সভাপতি সাধারণ সম্পাদক পদে কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত করা হতে পারে এমন ধারণা সকলের।

ঠাকুরগাঁও জেলা আ.লীগের সভাপতি মো: সাদেক কুরাইশী বলেন, সব ঠিক থাকলে আজ সম্মেলনের মাধ্যমে হরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হবে। তবে কারা কারা প্রার্থী হচ্ছেন এটা এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।