হাতীবান্ধায় মারধর ও টাকা ছিনিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন 

107
হাতীবান্ধায় মারধর ও টাকা ছিনিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন 
হাতীবান্ধায় মারধর ও টাকা ছিনিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন 

মোস্তাফিজুর রহমান লালমনিরহাট প্রতিনিধি:লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় অটো চালকের সঙ্গে রাজমতি সীডস্ নামে এক কোম্পানির ম্যানেজারের সাথে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে মারধর ও টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার ( ১০ মে) দুপুরে ওই কোম্পানির হাতীবান্ধা উপজেলা অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় রাজমতি সীডস্ কোম্পানির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। 

লিখিত বক্তব্য থেকে জানা যায়, গত সোমবার বেলা তিনটার দিকে রাজমতি সীডস্ এর  (হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম) শাখার ম্যানেজার জুলফিকার বাদশা অফিস থেকে তার নিজ বাড়িতে যাওয়ার সময় হাতীবান্ধা হাটখোলা নামক এলাকায় এক অটো চালকের সঙ্গে কথাকাটাকাটি হয়। এর একপর্যায়ে ওই এলাকার জয়নাল শাহ’র ছেলে হায়দার শাহের সঙ্গে ম্যানেজার জুলফিকার বাদশা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

এরই জের ধরে ওইদিন বিকেল পাচঁটার দিকে রাজমতি সীডস্ এর ম্যানেজার জুলফিকার বাড়ি হতে অফিসে আসার সময় উপজেলার হাটখোলা নামক এলাকায় পৌঁছালে একই আলী শাহা’র ছেলে আজগর আলী ও সহযোগীরা তার পথরোধ করে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ সময় ওই ম্যানেজারের কাছে থাকা দশ লাখ পাচঁ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা। এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুলফিকারের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর হাসপাতালে পাঠান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এদিকে এ অভিযোগ  অস্বীকার করে আলী শাহ বলেন, এ গুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা ও আমাদের ফাঁসাতে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।
হাতীবান্ধা থানার অফিসার ইনর্চাজ এরশাদুল আলম বলেন,এ ঘটনায় আমরা দু পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। টাকা ছিনতাই হয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।