হযরত মুহাম্মদ (সা :)কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

149
হযরত মুহাম্মদ (সা :)কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত
হযরত মুহাম্মদ (সা :)কে নিয়ে বিজেপি নেতাদের কটুক্তির প্রতিবাদে উত্তরায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

সাইফুল ইসলাম একা (উত্তরা): তুরাগের  সর্বস্তরের জনতার পক্ষ হতে  বিশ্বনবী হজরত মোহাম্মদ (সাঃ)  ও উম্মুল মুমিনীন হজরত আয়েশা সিদ্দিকা ( রাঃ) কে নিয়ে  ভারতের বিজেপি নেতা নুপুর শর্মা ও নবীন কুমার কর্তৃক কটূক্তির প্রতিবাদে ১০ জুন ২০২২ শুক্রবার জুম’আ বাদ বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মিছিলটি উত্তরার বিভিন্ন মসজিদ থেকে বের হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে  গিয়ে উত্তরা ১০ নাম্বার সেক্টর কামারপাড়া ওয়াচ টাওয়ারের উপর দাঁড়িয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।  উক্ত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন মুফতি মহীউদ্দীন মাসুম শাইখুল হাদীস ও মোহতামীম জামিয়া সুবহানিয়া মাহমুদ নগর তুরাগ ঢাকা।  তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকে মুসলমানদের উপর অমানবিক নির্যাতন করে আসছে,তারা মুসলমানদের ঘর, বাড়ী, দোকান পাট  সমুহ জালিয়ে দিয়েছে। আমরা নিরবে সয়ে গেছি। অযোধ্যার  ঐতিহাসিক বাবড়ী মাসজিদ ভেঙে চুরমার করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি বরং তাদের বানানো পুতুল বিচারপতি দিয়ে রায় করে নিয়েছে নিজেদের পক্ষে,

গরু কে গোমাতা বানিয়ে মুসলমানদের  কে গরু  জবাই করার কারণে অপরাধী বানিয়ে বহু মুসলমানের উপর নির্যাতন করেছে, এবার যখন আমাদের প্রানাধিক প্রিয় বিশ্ব নবী, হজরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কে নিয়ে বিষোদগার করেছে, মুসলমানরা আর চুপ থাকতে না পেরে ময়দানে নেমেছে আজ। ভারত সরকারের নিকট আমাদের দাবী সেই কুখ্যাত নূপুর শর্মা কে শুধু বহিষ্কার করলে হবে না তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

তার বক্তব্য প্রত্যাহার  করতে হবে। তা নাহলে তাকে ফাঁসি দিতে হবে। বাংলাদেশ ৯০ভাগ মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ সরকার যেহেতু দাবি করে মুসলমানের ভোটে নির্বাচিত  সরকার তাই সরকারের নিকট আমাদের দাবি অনতিবিলম্বে এ বিষয়ে সংসদে একটি নিন্দা প্রস্তাব এনে সমগ্র মুসলমানের ঈমানি দাবি পূরণ করতে হবে। তাওহীদি মুসলিম জনতার প্রতি আমাদের  দাবি পূরণ  না হওয়া পর্যন্ত ভারতীয় সকল পণ্য বয়কটের আহবান জানাচ্ছি। ‘

আরো বক্তব্য দেন মুফতি মহীউদ্দীন খতীব ১০নং সেক্টর কেন্দ্রীয় মসজিদ, মুফতি কেফায়েত উল্লাহ আল মাহদী খতীব বাইতুর রাশাদ মাসজিদ। মুফতি আল আমীন খতীব বাইতুল মামুর মাসজিদ মুফতি খায়রুল হাসান সহ আরো উলামায়ে কেরাম গন বক্তব্য দেন।  উক্ত সভায় পরিচালনা করেন মাওঃ ওলীউল্যাহ এতে উপস্থিত ছিলেন মুফতি আলী আহমাদ কাসেমী, ব্যারিষ্টার মাওঃ মাববুবুল হক লোকমান বিশিষ্ট আইন জিবি ঢাকা সুপ্রিম কোর্ট, জমিয়ত নেতা  মুফতী আহমাদ শফি, জমিয়ত নেতা মুফতি শফিকুল ইসলাম, মাওঃশাহাদাত হুসাইন, মুফতি ইউসুফ মানসুর, মুফতি আহমাদ হুসাইন, মাওঃজয়নাল আবেদীন হাবীবী, হাফেজ মনির হুসাইন, মুফতি আবু সাঈদ,  মুফতি আঃ কুদ্দস, মুফতি মোজাম্মেল হক মাওঃ সাদ্দাম  সহ আরো শতাধিক উলামায়েগনসহ হাজার হাজার জনতা ।

ভারতীয় ক্ষমতাসীন বিজেপির মুখপাত্র নুপুর শর্মা ও নবীন কুমার জিন্দাল মহানবী (সা.) ও উম্মুল মোমেমিন হযরত আয়েশা (রা.) কে নিয়ে আপত্তিকর কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছেন। তিনি অবিলম্বে কুরুচিপূর্ণ  মন্তব্যের জন্য অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করে ভারত সরকারকে মুসলিম উম্মাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনার আহবান জানান।