স্টার্টআপবান্ধব রাজস্ব নীতি প্রণয়নে গুরুত্বারোপ আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর

135

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আগামী অর্থবছরকে স্টার্টআপবান্ধব রাজস্ব নীতি প্রণয়নের বছর হিসেবে স্মরণীয় করে রাখতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের আওতাধীন ‘ডিজিটাল উদ্যোক্তা এবং উদ্ভাবন ইকোসিস্টেম উন্নয়ন’ প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান।

দেশের সফল স্টার্টআপরা জ্ঞানভিত্তিক, প্রযুক্তিনির্ভর ভবিষ্যৎ অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি হবে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে দেশের প্রতিটি হাই-টেক পার্কে স্টার্টআপদের জন্য বিনামূল্যে মেন্টরিং, কুচিং একটি করে ফ্লোর বরাদ্দ রাখা হয়েছে। সেখানে বিনামূল্যে স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্পেস দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশ স্টাটআপ কোম্পানি লিমিটেড ও আইডিয়া প্রকল্পের মাধ্যমে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল হিসেবে তাদের ফান্ডিং প্রদান করা হচ্ছে। এসকল নীতি সহায়তার মাধ্যমে দেশে ইনোভেটিভ ইকোসিস্টেম তৈরি হবে বলেও তিনি জানান। তিনি বলেন, নলেজ বেইজড ইকোনমিক গড়ে তুলতে নলেজ বেইজড ব্যুরোক্রেসি, পলিটিক্স ও সোসাইটি গড়ে তুলতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাঙালি তরুণরা জন্মগতভাবে সাহসী ও উদ্ভাবক। আমাদের দেশের মানুষ প্রকৃতির বৈরী আবহাওয়ার সাথে মোকাবিলা করেই চলে এবং নতুন নতুন উদ্ভাবনী সমাধান নিয়ে জীবন যাপন করছে। যথাযথ নেতৃত্ব পেলে যে কোনো বাধা অতিক্রম করে তরুণরা এগিয়ে যেতে পারবে।

‘স্টার্টআপবান্ধব রাজস্ব নীতি’ শীর্ষক দিনব্যাপী এ কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান (সিনিয়র সচিব) আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিম, অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ
হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ।

কর্মশালায় আইসিটি বিভাগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাগণ অংশগ্রহণ করেন।