“সুশাসনের জন্য কৌশলগত যোগাযোগ” বিষয়ে নারী সাংবাদিকদের কর্মশালা

146

এ.এস.কাঁকন,জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজার : জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট (এনআইএমসি) আয়োজিত এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের পিফরডি প্রকল্পের আওতায় “সুশাসনের জন্য কৌশলগত যোগাযোগ” বিষয়ে নারী গণমাধ্যম কর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে দুদনিব্যাপী (৭-৮ এপ্রিল) অনলাইন প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জুম অ্যাপে প্রথম ব্যাচের এই কর্মশালায় মৌলভীবাজারসহ ১১টি জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ৩০ জন নারী সাংবাদিক অংশগ্রহন করেন।

জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহিন ইসলাম (এনডিসি) এর সভাপতত্বিে ও প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর, পরিচালক (প্রশক্ষিণ-প্রকৌশল) মো: নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় কর্মশলার সমাপনীতে অথিতি হিসেবে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন ডিসি মো: গোলাম আজম, প্লাটফর্মস ফর ডায়ালগের পিফরডি টিম লিডার আর্সেন স্টেফেনিয়ন ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব আয়েশা আক্তার।

কর্মশালায় সুশাসন প্রতিষ্ঠায় জবাবদিহিতার ৫টি টুলস, জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল, সেবা প্রদান প্রতিশ্রুতি, সিটিজেন চার্টার, অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা, বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি, তথ্য অধিকার আইন ও অনুসন্ধানি প্রতিবেদন তৈরির কৌশল নিয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

এসময় ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহিন ইসলাম অংশগ্রহণকারী নারী সাংবাদিকদের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রশিক্ষণের গুরুত্ব উল্লেখ করে বলেন, এনআইএমসি সারাদেশে সাংবাদিকদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে। আমরা অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে বিভিন্ন জেলায় প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। শুধুমাএ নারী সাংবাদিকদের নিয়ে এই ধরনের প্রশিক্ষণ আয়োজন আমাদের জন্য প্রথম। তবে আমরা পরবর্তীতেও নারী গণমাধ্যম কর্মীদের আর সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এধরনের প্রশিক্ষণ অব্যাহত রাখবো।

বর্তমান প্রেক্ষাপটে সাংবাদিকতায় ভুল তথ্য মোকাবেলার জন্য তথ্য যাচাইকরণ ও পর্যবেক্ষণ অত্যন্ত প্রয়োজনীয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, সাংবাদিকরা শুদ্ধাচার, তথ্য অধিকার, সিটিজেন চার্টার, সেবা প্রদান ও প্রতিশ্রুতি বিষযে অনুসন্ধানী রিপোর্ট করলে দেশে সুশাসন, স্বচ্ছতা ও শুদ্ধতা নিশ্চিত হবে।

কর্মশালায় জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের উপ-পরিচালক আবুজার গাফ্ফারী, মোঃ সোহেল পারভেজ ও সহকারী পরিচালক আব্দুল মান্নান যুক্ত ছিলেন।