সিলেটে বড় ধরণের বন্যার আশঙ্কা!

127

আবুল কাশেম রুমন,সিলেট: প্রতিদিন সিলেটে নদ নদীগুলো পানি বাড়তে শুরু হয়েছে। সিলেটে বৃষ্টিপাত না থাকলে এতো পানি কেন বাড়ছে ও হাওরের ধান বণ্যার পানিতে তালিয়ে যাচ্ছে কেন ? এসব প্রশ্নের উত্তর খুজতে গিয়ে দেখা যায় দেশের উত্তর এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চল, তদসংলগ্ন ভারতের আসাম এবং মেঘালয়ে প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে এব পানি বাড়ছে। আর সেই পানি সেখানকার বড় বড় বাধ বেঙে বাংলাদেশ সীমান্তে প্রবেশ করছে। আগামী রোববার (১৭ এপ্রিল) পর্যন্ত ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে সুনামগঞ্জের সুরমা, কুশিয়ারা, যাদুকাটার কয়েকটি পয়েন্টের পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে।
এ অবস্থায় জেলার সব কৃষককে যত দ্রুত সম্ভব ধান কেটে ফেলার জন্য অনুরোধ করেছেন জেলা প্রশাসকরা।
 সম্প্রতি জেলা প্রশাসনের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর ও অন্যান্য বৈশ্বিক আবহাওয়া সংস্থাসমূহের পূর্বাভাস অনুযায়ী ১০ এপ্রিল থেকে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশের উত্তর এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চল, তদসংলগ্ন ভারতের আসাম এবং মেঘালয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে সুরমা, কুশিয়ারা, যাদুকাটার কয়েকটি পয়েন্টের পানি বিপৎসীমানা অতিক্রম করার সম্ভাবনা রয়েছে। এ অবস্থায় সকলকে সর্বাধিক অগ্রাধিকার সহকারে যত দ্রুত সম্ভব ধান কেটে ফেলার নির্দেশনা দেওয়া হলো।
এতে আরও বলা হয়, কোথাও কোনো স্থানে যদি ফসল রক্ষা বাঁধে ফাটল দেখা দেয় অথবা বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয় যত দ্রুত সম্ভব স্থানীয় প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের অবহিত করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হলো।
সিলেট আবহাওয়া অফিসের প্রধান আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী সম্প্রতি জানিয়েছিলেন, সিলেট এবং উজানে বৃষ্টিপাত হতে পারে। এ অনুযায়ী গত দুদিন ধরে সিলেটে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এ কারণে বাড়বে সুরমা-কুশিয়ারা নদীর পানি।