রংপুর নগরীতে সিএনজি’র রেজিস্ট্রেশনসহ রুট পারমিশন অনুমোদনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

116

নুর হাসান, চান রংপুর : রংপুর নগরীতে সিএনজি’র রেজিস্ট্রেশনসহ রুট পারমিট অনুমোদনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে রংপুর মেট্রোপলিটন সিএনজি মালিক-শ্রমিক সমিতি এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।সড়কে পুলিশের হয়রানীস এসময় লিখিত বক্তব্য রাখেন রংপুর মেট্রোপলিটন সিএনজি

মালিক-শ্রমিক সমিতি সভাপতি তহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ নগরীর বাংলাদেশ ব্যাংক মোড় থেকে লালমনিরহাট কাকিনা এলাকায় পর্যন্ত সিএনজি চালিয়ে আসছেন। এতে যা আয় রোজগার হয় তাই দিয়ে তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে জীবন যাপন করছেন। এজন্য যাত্রী উঠা-নামা করার জন্য তারা রংপুর-গঙ্গাচড়া সড়কের বাংলাদেশ ব্যাংক মোড় এলাকায় ১৫ শতক জমি লিজ নিয়ে সিএনজি স্ট্যান্ড প্রতিষ্ঠা করেন।

তিনি সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রংপুর নগরীর বাংলাদেশ ব্যাংক মোড়ে কর্মরত পুলিশ সার্জেনসহ থানার বিভিন্ন পুলিশ কর্মকর্তারা সিএনজি শুলো চলাচলে কারণে ও কারণে বিভিন্ন সময় বাধা সৃষ্টি করে। রুট পারমিট ও রেজিষ্ট্রশন না থাকাসহ বিভিন্ন অযুহাতে সিএনজি চলাচলে বাঁধার সৃষ্টি করে। কোন কথা বলার আগেই মামলা দিয়ে রাখে। যদি মামলা দেয় তাহলে আমরা পরিবার নিয়ে কিভাবে জীবন যাপন করবো, আর কিস্ত চালাবো কি দিয়ে।

সমিতি সভাপতি তহিদুল বলেন, এতে প্রায় ৩ শতাধিক সিএনজি চালক শ্রমিক পরিবার পরিজন নিয়ে অনহারে-অদ্যাহারে জীবন যাপন করবে। কারণ অনেকেই দারদেনা করে সিএনজি ক্রয় করেছে। কেউবা এনজিও থেকে চড়া সুদে কিস্তি তুলে সিএনজি কিনে চালাচ্ছে। তাই অবিলম্বে রংপুর-গঙ্গাচড়া, জলঢাকা-আনোয়ারমারী-কৈমারীসহ বিভিন্ন রুট অনুমোদন ও সিএনজি রেজিস্ট্রেশন দেয়ার দাবি জানাই।

বক্তারা বলেন, আমারদের দাবি গুলো যদি না মানা হয় তাহলে পরিত্র ঈদ উল ফিতরের পরে আমরা সকল সিএনজি শ্রমিকরা মিলে রংপুর বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি দিতে বাব্য হবো। মানবিক দিক বিবেচনা করে শমিকদের ন্যার্য দাবি দ্রুত রেজিষ্ট্রেশন ও রোড পারমিট দেওয়ার জনা পুলিশ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা মহাদয়ের দৃষ্টি আকর্ষন করছি আমরা।

এসময় রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি নজরুল ইসলাম রাজু, সাধারণ সম্পাদক সরকার মাজহারুল মান্নান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোজাফফর হোসেন, রংপুর মেট্রোপলিটন সিএনজি মালিক-শ্রমিক সমিতি সহ-সভাপতি ইলিয়াস আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাখুসহ প্রায় শতাধিক সিএনজি চালক-মালিক-শ্রমিকসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।