মোরেলগঞ্জে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন সিপিবি’র

120
মোরেলগঞ্জে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন সিপিবি’র
মোরেলগঞ্জে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন সিপিবি’র

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির একটি প্রতিনিধি দল মোরেলগঞ্জ উপজেলার নিশান বাড়িয়া ইউনিয়নের আমোর বুনিয়ায় সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ হিন্দু বাড়ি ও মন্দির পরিদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে এই আসনের সিপিবি মনোনীত প্রার্থী শরিফুজ্জামান শরিফ, উপজেলা সিপিবি সম্পাদক জুরেন্দ্র নাথ মজুমদার, কৃষক সমিতির আহবায়ক ডাক্তার জয়নাল আবেদিন, ক্ষেতমজুর সমিতির আহবায়ক মাস্টার মজিবর রহমান, ক্ষেতমজুর সমিতির নিশান বাড়িয়া ইউনিয়ন সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য কামাল হোসেন, স্থগিত থাকা নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনে ক্ষেতমজুর সমিতির সমর্থিত দুই সদস্য প্রার্থী পারভীন আকতার ও মাহিনুর ইসলাম প্রমুখ।

তারা এই ঘটনার নিন্দা করেন। পরিদর্শনকালে সিপিবির নেতৃবৃন্দ বলেন, শান্ত মোরেলগঞ্জকে অশান্ত করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। কোন ধর্ম- বর্নের মানুষকে হেয় বা কটাক্ষ করাকে আমরা সমর্থন করিনা।কেউ এটা করলে তার তদন্ত করে বিচার করার পদ্ধতি আছে,কোন অন্যায় কাজের বিচার করার অধিকার কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে দেয়া হয়নি। কিন্তু দেখা গেছে সারাদেশে আগেও এমন গুজব ছড়িয়ে হামলার ঘটনা ঘটেছে। আমর বুনিয়ার ঘটনা তার থেকে বিচ্ছিন্ন নয়। আগের ঘটনায় বিচার না হওয়ায় এই ঘটনা ঘটছে।

তারা আরও বলেন, ধর্মের সাথে সাংঘাতিক ও সমাজে বহু অন্যায় ঘটলেও এই চক্রের তার প্রতিবাদ এর আগ্রহে নেই কিন্তু গুজবে ঝাপিয়ে পড়ায় এদের আগ্রহ অনেক। এই ঘটনায় নিরপেক্ষ তদন্ত চাই, বিচার চাই। আমরা শুনছি অনেক নিরাপরাধ মানুষকে হয়রানি করা হচ্ছে। আমরা নিরপরাধ কেউকে জড়ানো হলে তা মানবো না। ঘটনার পর প্রশাসন সক্রিয় হয়েছে কিন্তু আক্রান্তরা নিরাপত্তাহীন আছে। তাদের ঘরে খাবার নেই, ওষুধ নেই। তারা ঘর থেকে বের হতে পারছে না।

প্রতিনিধি দলটি ঘটনাস্থল ঘুরে এসে মোরেলগঞ্জে সাংবাদিকদের কাছে পরিস্থিতি তুলে ধরে ব্রিফ করেন।