মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ফ্রি চক্ষু চিকিৎসা

91

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে চলছে বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা সহ ওষুধ ও চশমা বিতরণ কর্মসুচী। চোখ দিয়ে পানি পড়া, পুঁজ পড়া বা ময়লা আসা, চোখ চুলকানো, মাথা ব্যাথা, চোখ ব্যথা, চোখ জ্বালা-পোড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, নেত্রনালী পরিষ্কার, কাছে ও দূরে কম দেখাসহ বিভিন্ন ধরনের রোগের চিকিৎসা করা হচ্ছে।

সোমবার (২৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত রাজধানীর নারিন্দাস্থ দারুল উলূম আহসানিয়া কামিল এম.এ মাদ্রাসা, (৪৭নং শাহ্ সাহেব লেন, মশুরী খোলা দরবার শরিফ) প্রাঙ্গণে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ সহ চশমা বিতরণ কার্যক্রম চলে। এদিন ৬৫৩ জন রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়।

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহা. হাবিবুল ইসলাম সুমন জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর ও স্নেহভাজন মেয়র মোহাম্মদ হানিফের জীবন কেটেছে মানবসেবায়। তারই সুযোগ্য সন্তান ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের নেতৃত্বে ও আর্থিক সহায়তায় সেবামূলক কাজটি চালিয়ে যাচ্ছে মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন। এ কার্যক্রমের আওতায় এক মাস দুই দিন রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় চিকিৎসা দেবে ফাউন্ডেশনের মেডিকেল টিম।

চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম তদারকি করছেন মেয়র মোহাম্মদ হানিফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের অন্যতম সমন্বয়কারী হাজী হাফিজ, আতিকুর রহমান স্বপন, মোখলেসুর রহমান রোমেল. হাজী বাবু ভুইয়া, সালাহউদ্দিন তুহিন, ফায়সাল শেখ, শাহাদাত হোসেন মিকো সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড সমন্বকারী চুন্নুমিয়া, জাকির হোসেন দিপুর, তোফাজ্জাল হোসেন জয়, মোহাম্মদ হানিফ, মো. রনি।

কার্যক্রম সম্পর্কে ফাউন্ডেশনের অন্যতম সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সাদেক মিঠু বলেন- বিভিন্ন এলাকায় চিকিৎসা ক্যাম্প পরিচালিত করা হয়। চিকিৎসকেরা খুবই আন্তরিকভাবে চিকিৎসা দিয়েছেন। সঙ্গে চক্ষু চিকিৎসা সেবা ও ওষুধসহ চশমাও দিচ্ছি। রোগীদের রাজধানীর যাত্রাবাড়ী চক্ষু হাসপাতাল ও ফ্যাকো সেন্টারের চিকিৎসক ক্যাম্পের সঙ্গে রয়েছেন। এই ক্যাম্প থেকে বিনামূল্যে চক্ষু পরীক্ষা, নেত্রনালী (টিউবসহ) অপারেশন, মাংস বৃদ্ধি (গ্রাফটিং) অপারেশন, নেন্ত্রনালী (এসপিটি) পরীক্ষা এবং ব্যথামুক্তভাবে সেলাইবিহীন পদ্ধতিতে লেন্স সংযোজন ইত্যাদি কাজ করে থাকেন।

ফাউন্ডেশনের চক্ষু চিকিৎসা কার্যক্রমের সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করছেন মোহাম্মদ সাজেদ বেপারী। তিনি জানান এ পর্যন্ত ফাউন্ডেশনের আওতায় সর্ব মোট ৭০ টি ক্যাম্প আয়োজন করে মোট ২৫,০০০ (পঁচিশ হাজার) জন রোগীকে চক্ষু সেবা প্রদান করা হয়েছে। নেত্রনাণীতে সমস্যা ও চোখে ছানী পড়া ৫৮০ জন রোগীর অপারেশন করা হয়েছে।