মাটি বহনকারী ট্রাক্টর চলায় নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কের বেহাল দশা

98
মাটি বহনকারী ট্রাক্টর চলায় নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কের বেহাল দশা
মাটি বহনকারী ট্রাক্টর চলায় নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কের বেহাল দশা

ইয়ানূর রহমান, যশোর থেকে : যশোর জেলার অন্তর্গত ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারন ইউনিয়নে নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কে অবৈধ যান ও মাটি বহনকারী ট্রাক্টর চলাচলের কারণে বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। রাস্তা কর্দমাক্ত ও পিচ্ছিল হয়ে পড়ায় প্রায়ই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। এতে করে মারাত্মক জখম হচ্ছেন অনেক সাধারণ মানুষ।

যশোর জেলার শার্শা উপজেলার প্রবেশদ্বারখ্যাত নাভারন। নাভারন সাতক্ষীরা মোড় থেকে মহাসড়ক দুইভাগে বিভক্ত হয়েছে। একটি নাভারন-বেনাপোল, অপরটি নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়ক। এই মহাসড়ক দুটি দিয়ে প্রতিদিন ২০-২৫ হাজার যানবাহন চলাচল করে। সড়কে প্রতিদিন অন্তত ১০ হাজার অবৈধ যান বিভিন্ন মালামাল নিয়ে এবং মাটি বহনকারী ট্রাক্টর চলাচল করছে।

এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন মাটি বহনকারী শত শত ট্রাক্টর চলাচল করছে। ভরা বর্ষা মৌসুম চললেও থামছে না মাটি বহন করা। যার ফলে হাইওয়ে সড়কসহ গ্রাম্য রাস্তাগুলো কর্দময় পিচ্ছিল হয়ে উঠেছে। প্রতিদিন ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

এছাড়া পরিবহন মালিক ও চালকরা অভিযোগ করেছেন, মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ থাকলেও তা মানা হচ্ছে না।

এ বিষয়ে শার্শা প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গনি বলেন, মহাসড়কসহ গ্রাম্য রাস্তাগুলোও চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। পিচের রাস্তার উপর মাটি পড়ায় একটু বৃষ্টিতেই পিচ্ছিল কাদার সৃষ্টি হচ্ছে।

এ বিষয়ে নাভারন হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মঞ্জুরুল আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, খুব শিগগির অবৈধ যানবাহনের ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হবে।