মনোহরদিতে দাওয়াত খেয়ে শিশুসহ ৪০ জন অসুস্থ

160

ইলিয়াছ হায়দার, নরসিংদী : নরসিংদীর মনোহরদীতে সুন্নতে খাতনা অনুষ্ঠানে দাওয়াত খেয়ে শিশুসহ ৪০ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁদের মধ্যে ৩২ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়ে ১৯জনকে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা বিভিন্ন ক্লিনিক ও বাড়িতে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত পেটব্যথা, বমি ও পাতলা পায়খানা নিয়ে রোগীরা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অসুস্থদের মধ্যে অধিকাংশই শিশু।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার উপজেলার চন্দনবাড়ী ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামের খলিল সরকারের বাড়ীর জুয়েলের ছেলে মাহিনের সুন্নতে খাতনা উপলক্ষে শতাধিক মেহমান দাওয়াত করা হয়। অনুষ্ঠানের খাবার খাওয়ার পর থেকে অসুস্থ হতে থাকেন লোকজন।
বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, পেটে ব্যথা, বমি ও পাতলা পায়খানা নিয়ে ১৯ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। কেউ কেউ চিকিৎসা নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়াদের মধ্যে ১৫ জনই শিশু।


হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মো. এমদাদুল হক সোহেল সাংবাদিকদের বলেন, দাওয়াত খেয়ে খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে বমি ও পেটব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ৩২ জন রোগী এসেছিলেন। তাঁদের মধ্যে ১৯ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেছেন।

রইস উদ্দিন নামে এক রোগী বলেন, ‘দাওয়াতে দই খাওয়ার পর থেকে পেটব্যথা শুরু হয়। পরে পাতলা পায়খানা ও বমি হতে থাকে। অবস্থা বেশি খারাপ হলে রাতেই এসে হাসপাতালে ভর্তি হই। এখানে এসে জানতে পারলাম, ওই অনুষ্ঠানে যারা দই খেয়েছেন, প্রায় সবার একই অবস্থা।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রাশেদুল হাসান মাহমুদ বলেন, ‘সুন্নতে খাতনার দাওয়াত খেয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া সবাই খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে বমি ও পেটব্যথা নিয়ে হাসপাতালে এসেছেন। বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।’