ভোলায় মন্দিরের প্রতিমা ও স্বর্ণালংকার চুরি

ভোলায় মন্দিরের প্রতিমা ও স্বর্ণালংকার চুরি
ভোলায় মন্দিরের প্রতিমা ও স্বর্ণালংকার চুরি

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলায় কয়েক শত বছরের পুরোনো শ্রী শ্রী ভদ্রবাড়ি হরি মন্দিরের জানালা ভেঙ্গে রাতের আঁধারে ১৩টি পিতলের প্রতিমা ও ২ ভরি স্বর্ণালংকার চুরি হয়েছে। সেই সঙ্গে ১০ হাজার টাকাসহ পূজার কাজে ব্যবহৃত আসবাবও নিয়ে গেছে চোরচক্র। সোমবার রাতে কোন এক সময়ে এ ঘটনা ঘটে।

মন্দিরটি ভোলা পৌর শহরের ১ নং ওয়ার্ডে অবস্থিত। চুরি হওয়া প্রতিমার মধ্যে ৪টি রাধা-কৃষ্ণের ও ৪টি গোপালের প্রতিমা। বাকিগুলো অন্যান্য দেব-দেবীর। সব মিলিয়ে কয়েক লক্ষাধিক টাকা মূল্যমানের প্রতিমা, স্বর্ণালংকার ও আসবাব চুরি গেছে বলে মন্দির কমিটির নেতারা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার(২২ মার্চ) সকালে পুরোহিত ও ভক্তরা মন্দিরে পূজা দিতে এসে ভেতরে প্রবেশ করে দেখেন, সবকিছু এলোমেলো। মন্দিরের ১৩টি পিতলের প্রতিমা ও ২ ভরি স্বর্ণালংকার চুরি হয়ে গেছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে ক্ষোখের সৃষ্টি হয়েছে। মন্দির কমিটির নেতারা বলেন, গতকাল সন্ধ্যার পর পূজা-অর্চনা শেষ করে মন্দিরে তালা লাগিয়ে সবাই যে যার মতো বাড়ি-ঘরে চলে যায়। গভীর রাতে চোরচক্র পেছনের জানালা ভেঙ্গে মন্দিরে প্রবেশ করে মূর্তি, স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। আজ মঙ্গলবার সকালে পুরোহিত ও ভক্তরা মন্দিরে পূজা দিতে এসে ভেতরে প্রবেশ করে দেখেন এসব চুরি হয়ে গেছে।

শ্রী শ্রী ভদ্রবাড়ি হরি মন্দির কমিটির সভাপতি মহাদেব ভদ্র জানান, গতকাল রাতেও মন্দিরে পূজা হয়েছিল। কিন্তু রাতের যেকোনো সময় চোরচক্র মন্দিরের জানালা ভেঙ্গে মূর্তি, স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। তিনি আরও জানান, এ বিষয়ে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

ভোলা সদর মডেল থানার ওসি মো. এনায়েত হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।