ভূরুঙ্গামারীতে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

135
ভূরুঙ্গামারীতে যুবককে কুপিয়ে হত্যা
ভূরুঙ্গামারীতে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে আলতাফ হোসেন ফিরোজ (১৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার মধ্যরাতে ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের রাঙ্গালীর কুটি গ্রামে এই নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত আলতাফ হোসেন ফিরোজ ওই গ্রামের মৃত মল্লুক চানের ছেলে। স্থানীয়দের ধারণা প্রেম ঘটিত কারনে ফিরোজকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানাগেছে, ফিরোজ বলদিয়া ইউনিয়নের রাঙ্গালীর কুটি গ্রামের আবুল মোড়ে মুদি দোকান করতো। শনিবার রাত ১২টার দিকে দোকান বন্ধ করে মোটরসাইকেল যোগে বাড়িতে ফেরার পথে একটি বাঁশ বাগানের কাছে আসলে দুর্বৃত্তরা তার গতি রোধ করে মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে এবং মারপিট করে। এ সময় তার চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে সড়কের উপর রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখতে পান।

সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নেয়ার পথে সে মারা যায়। পরে কচাকাটা থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে রবিবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

স্থানীয় বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম ও জুলমাত আলী জানান, রাতে মানুষের চিৎকার চেচামেচি শুনে দৌড়ে গিয়ে জানতে পাই দুর্বৃত্তরা ফিরোজকে কুপিয়ে মেরে ফেলেছে। তার মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন ছিল।

নিহতে বড় ভাই সাদ্দাম হোসেনের স্ত্রী জেসমিন আক্তার বলেন, ফিরোজ খুব সহজসরল ছেলে ছিল। যারা ফিরোজকে হত্যা করেছে আমরা তাদের বিচার চাই। কচাকাটা থানার ওসি জাহেদুল ইসলাম বলেন, আলতাফ হোসেন ফিরোজের মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যার প্রকৃত কারণ উদঘাটন ও দোষীদের আইনের আওতায় আনতে কাজ শুরু করেছে পুলিশ।