ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত মানিকগঞ্জের ঘিওর, সাটুরিয়া

94

শফিকুল ইসলাম সুমন, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : মুজিব বর্ষে আশ্রয়ণ প্রকল্পে ভূমি ও গৃহহীন পরিবার পুনর্বাসনের মধ্যে দিয়ে মানিকগঞ্জের ঘিওর ও সাটুরিয়া উপজেলা ভূমিহীন মুক্ত হতে চলেছে।

বুধবার, ২০ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ জানান, বৃহস্পতিবার ঘিওর ও সাটুরিয়া উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মানিকগঞ্জে মোট ভূমিহীন ও গৃহহীন (ক তালিকা) পরিবারের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪৩৩টি। পরবর্তীতে বাছাই করে হালনাগাদ করে মোট ১ হাজার ৪৪৬টি পরিবারকে সুবিধাভোগীর তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২৯৪টি, সিঙ্গাইরে ৪৯৭টি, সাটুরিয়ায় ৫৯টি, শিবালয়ে ১৪৪টি, ঘিওরে ১০৫টি, হরিরামপুরে ১২৪টি এবং দৌলতপুর উপজেলায় ২২৩টি ঘর রয়েছে। এর মধ্যে প্রথম পর্যায়ে জেলায় ১৩৫টি ঘর নির্মাণ করা হয়। দ্বিতীয় পর্যায়ে ২৫৫টি ঘর, গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প ও ব্যক্তি উদ্যোগে ১৩টি ঘর এবং তৃতীয় পর্যায়ে প্রথম ধাপে ৮৮টি ঘর ও দ্বিতীয় ৩৭৩টি ঘর নির্মাণ নির্মাণ করা হয়। এছাড়া তৃতীয় পর্যায়ে বরাদ্ধপ্রাপ্ত আরও ১৫৭টি ঘরের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। সব মিলিয়ে পর্যায়ে জেলা মাট ১ হাজার ২১টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আবদুল লতিফ বলেন, বৃহস্পতিবার জেলার ঘিওর ও সাটুরিয়া উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে। আশ্রয়ণ প্রকল্পে যেসব পরিবারকে পুনর্বাসন করা হচ্ছে, সে তালিকার বাইরে প্রাথমিকভাবে এ দুটি উপজেলায় ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল, অসহায় দরিদ্র পরিবার আর নেই। তবে প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা অন্য কারণে এমন কোনো ব্যক্তি বা পরিবার চিহ্নিত হলে তাঁদের সরকারি নিয়ম অনুযায়ী পুনর্বাসন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা জহুরা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মহসীন মৃধা, মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানু, সাধারণ সম্পাদক অতীন্দ্র চক্রবর্তী বিপ্লবসহ জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।