ভারতে এশিয়ান সামিট অন এডুকেশনে গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

102

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে শিক্ষার মানোন্নয়ন, সিলেবাস প্রণয়ন ও প্রযুক্তিগত কাঠামো ও কনটেন্ট নির্মাণে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। এজন্য একটি অভিন্ন প্ল্যাটফর্ম গড়ে তুলতে হবে।

বিশ্বের সবচেয়ে ঘণবসতিপূর্ণ এ অঞ্চল মানসম্মত শিক্ষাব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে আরো পূঁজি বিনিয়োগ করতে হবে। এ জন্য দেশগুলো একটি শিক্ষা সহায়তা ফান্ড গড়ে তুলতে পারে। পাশাপাশি জাতিসংঘকে এ অঞ্চলে শিক্ষার প্রসারে আরো নিবিড়ভাবে কাজ করার জন্যও তিনি আহ্বান জানান।

আজ বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর সকালে ভারতের বেঙ্গালুরে ‘এশিয়ান সামিট অন এডুকেশন এন্ড স্কিলস (এএসইস) ২০২২’-এর বার্ষিক অধিবেশনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে বক্তব্য প্রদানের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ অঞ্চলের শিশুরা বৈশ্বিক জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত সংকটে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত। বিরাট সংখ্যক শিক্ষার্থীর আবাস ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পানির নিচে তলিয়ে যাবার ফলে তারা বাস্তুচ্যুত ও শিক্ষা বঞ্চিত হচ্ছে। নিঃস্ব পরিবারের সহায়তায় শিক্ষার্থীকে ক্লাসের পরিবর্তে কাজে বের হতে হচ্ছে, যা অমানবিকই কেবল নয়, জাতিসংঘের শিশু সনদ ও আইএলও কনভেশনেরও পরিপন্থী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী Yediyurappa।