বান্ধবীর সঙ্গে রুমে স্বামী, স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা (ভিডিও)

230
বান্ধবীর সঙ্গে রুমে স্বামী, স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা
বান্ধবীর সঙ্গে রুমে স্বামী, স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। শুক্রবার রাতে এখানে একটি পারিবারিক নাটক ছিল, যেখানে স্ত্রী তার স্বামী এবং তার বান্ধবীকে বেধড়ক মারধর করে। স্ত্রী যখন স্বামীর বাড়িতে পৌঁছায়, দুজনেই একই ঘরে। আসলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া চলছে। এর শুনানির জন্য স্বামীকে আদালতে যেতে হলেও তিনি যাননি। সেখানে না গিয়ে বান্ধবীকে ফোন করেন। স্ত্রী বিষয়টি জানতে পেরে কাঁপতে কাঁপতে স্বামীর বাড়িতে পৌঁছান। ঘটনাটি কানাদিয়া থানার অন্তর্গত সঞ্চার নগরের। এই ঘটনার ভিডিও এখন ভাইরাল।

ইন্দোর:
মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে শুক্রবার রাতে ঘটেছে তুমুল পারিবারিক নাটক। এখানে এক স্ত্রী তার বান্ধবীসহ স্বামীকে হাতেনাতে ধরেছে। দুজনকে এক ঘরে দেখে স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়ে দুজনকে বেধড়ক মারধর করে। কয়েক ঘণ্টা ধরে চলে এই হট্টগোল এবং পরে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। সোনকাচে বসবাসরত স্বামীর সঙ্গে স্ত্রীর বিরোধ চলছে। দুজনেরই মামলা আদালতে।শনিবার এ বিষয়ে শুনানি হলেও আদালতে যাননি স্বামী। সেখানে না গিয়ে বান্ধবীকে ফোন করেন। ঘটনাটি কানাদিয়া থানার অন্তর্গত সঞ্চার নগরের। এই ঘটনার ভিডিও এখন ভাইরাল।

তথ্য অনুসারে, সোনকাচের বাসিন্দা ময়ুর আকোদিয়া ২০১৮ সালে স্কিম ১১৪-এর বাসিন্দা হেমন্ত মেহতার মেয়ে সুরভীর সাথে বিয়ে করেছিলেন। ময়ূর এগ্রিকালচার পার্টস ম্যানুফ্যাকচারিং- ট্রেডিং। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই স্ত্রীর সঙ্গে তার ঝগড়া শুরু হয়। কথিত আছে, অনেক সময় ঝগড়া হাতাহাতি পর্যন্ত হয়।

মেয়ে তার স্বামীর কাছে অভিযোগ করে:

সুরভী তার বাবার কাছে একাধিকবার অভিযোগ করেছে যে ময়ূর তাকে মারধর করত। এরপর পরিবারের লোকজন মিলে স্বামীকে বুঝিয়ে বললেও স্ত্রীকে মারধর করতেন বলে অভিযোগ। গত বছরের মে মাসে, ময়ূর সুরভীকে মারধর করলে, তার বাবা তাকে ইন্দোরে তার মাতৃগৃহে নিয়ে যান এবং অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মহিলা থানায় মামলা করেন।

স্বামী আদালতে পৌঁছায়নি:

তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার এ মামলার শুনানি ছিল আদালতে। স্বামী আদালতে না এসে বান্ধবীর কাছে গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ স্ত্রীর। স্ত্রী বিষয়টি জানতে পেরে সঞ্চার নগরে পৌঁছে যান। একটি ঘরে স্বামী ও বান্ধবীকে দেখে চমকে গেলেন স্ত্রী।