বিদেশি বিনিয়োগের জন্য উৎকৃষ্ট স্থান বাংলাদেশ : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

132

বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় সর্বোত্তম জায়গা এবং অফুরন্ত সম্ভাবনা থাকায় দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ করার আহ্বান জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম। স্বাধীনতার মাত্র পঞ্চাশ বছরে বিশেষ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সময়কালে দেশে যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন অর্জিত হয়েছে তা বিশ্বের বিস্ময় বলেও জানান মন্ত্রী।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে ‘দুবাই এক্সপো-২০২০ এ বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন এবং স্থানীয় সরকার বিভাগ আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। গ্রাম-গঞ্জে তথ্য-প্রযুক্তি ও ইন্টারনেট, পানিসহ জরুরি সেবা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। একশো’টি অর্থনৈতিক জোন গড়ে তোলা হচ্ছে। বিদেশি বিনিয়োগকারীরা এসব অঞ্চলে বিনিয়োগের মাধ্যমে খুব সহজেই লাভবান হতে পারেন। বিদেশিদের জন্য ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি এবং বিনিয়োগ বাড়াতে বাংলাদেশ সরকার যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বলেও জানান তিনি।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশে গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন, পানি ও স্যানিটেশন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষিসহ সকল ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন হয়েছে। সারাবিশ্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত পেয়েছে। যদিও একটি গ্রুপ বাংলাদেশ সম্পর্কে নেতিবাচক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে। কিন্তু তাদের ষড়যন্ত্র কঠোরভাবে মোকাবেলা করার হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার শহরের সকল নাগরিক সেবা এবং আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দর্শন ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রত্যেক বাড়িতে বিদ্যুৎ, পানি ও স্যানিটেশন সেবা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল সুবিধা গ্রামের মানুষের হাতের নাগালে পৌঁছে দেয়া হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর। এছাড়া, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মুহসিন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খানসহ স্থানীয় সরকার বিভাগ ও এর আওতাধীন প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং দেশী-বিদেশী বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।