বিদেশি পর্যটকদের ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করা হচ্ছে : বিমান প্রতিমন্ত্রী

73
বিদেশি পর্যটকদের ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করা হচ্ছে : বিমান প্রতিমন্ত্রী
বিদেশি পর্যটকদের ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করা হচ্ছে : বিমান প্রতিমন্ত্রী

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী বলেছেন, দেশে বিদেশি পর্যটকদের আনতে ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁ হোটেলে ১৭তম আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা ‘ট্রিপলাভার ঢাকা ট্রাভেল মার্ট-২০২২’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদেশি পর্যটক আনতে ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করতেই হবে। ট্যুরিজমকে মাথায় রেখে এই প্রক্রিয়া সহজ করার বিষয়ে সরকার কাজ করছে। পাশ্ববর্তী দেশ ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় ৭টি রাজ্য, নেপাল ও ভুটানে কোনো সমুদ্র সৈকত নেই। তাদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করতে পারলে সেক্ষেত্রে অনেক পর্যটক পাবো। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাথে দ্রুত আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠক করা হবে। পর্যটন খাতের সাথে সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদেরও সেখানে ডাকা হবে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশে ক্রুজশিপ চালুর বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পরামর্শ নেয়া হবে, যাতে দ্রুত আন্তর্জাতিক রুটে চলাচলকারী ক্রুজশিপ বাংলাদেশে আনতে পারি। শিপের মধ্যেই যাতে পর্যটকদের ইমিগ্রেশন হয় এবং তারা নির্বিঘ্নে দেশের পর্যটনসমৃদ্ধ এলাকাগুলো ঘুরে দেখতে পারে।

দেশের পর্যটন খাত নিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে পদ্মাসেতু হয়েছে, মেট্রোরেল হচ্ছে, এলিভেটেড এক্সপ্রেস ওয়ে হচ্ছে। বিমানবন্দরের টার্মিনাল হচ্ছে, কক্সবাজারের সমুদ্র ছুঁয়ে রানওয়েতে নামবে প্লেন। এই অর্জনগুলো দেশের পর্যটন শিল্পকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করবে। এছাড়াও বাংলাদেশে অনেক ঐতিহাসিক, ধর্মীয় ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন আছে, হাওড় আছে। পর্যটন আকর্ষণের যেন পরিকল্পিত ও সমন্বিত উন্নয়ন হয়, সেজন্য একটি ট্যুরিজম মাস্টার প্ল্যান তৈরি করা হচ্ছে।

২ জুন সকাল থেকে শুরু হওয়া ৩ দিনব্যাপী এ মেলা শেষ হবে ৪ জুন। মেলায় প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রবেশ করা যাবে। মেলার প্রবেশমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে জনপ্রতি ৪০ টাকা। এবারের মেলায় প্রায় ৫০টি দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে। এর মধ্যে জাতীয় পর্যটন সংস্থা, এয়ারলাইন্স, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট, ট্রাভেল এজেন্সি, অনলাইন ট্রাভেল এজেন্সি এবং স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী সংস্থাও রয়েছে।

ঢাকা ট্রাভেল মার্ট ২০২২ এর টাইটেল স্পন্সর অনলাইন ট্রাভেল এজেন্সি ট্রিপলাভার, কো-স্পন্সর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। পার্টনার হিসেবে আয়োজনে সহযোগিতা করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন।