বশেমুরবিপ্রবির কৃষি বিভাগের দুই সেমিস্টারে মার্ক টেম্পারিংয়ের প্রমাণ মেলায় ফল সংশোধন

86

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) কৃষি বিভাগের দুটি সেমিস্টারে মার্ক টেম্পারিং এর প্রমাণ মিলেছে। ইতোমধ্যে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ৩য় বর্ষের প্রথম ও দ্বিতীয় সেমিস্টারে বেশ কিছু শিক্ষার্থীর মার্ক টেম্পারিং এর প্রমাণ পাওয়ার পর ফলাফল সংশোধন করা হয়েছে। 

নতুন সফটওয়্যারে শিক্ষার্থীদের মার্ক যুক্ত করতে গিয়ে ফলাফলে অমিল পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন কৃষি অনুষদের ডিন ও বিভাগটির চেয়ারম্যান ড. মোঃ মোজাহার আলী। তিনি বলেন, “নতুন সফটওয়্যারে মার্ক যুক্ত করতে গেলে খাতার মার্কের সাথে ফলাফলের মার্কের অমিল পাওয়া যায়। বেশ কিছু শিক্ষার্থীর খাতার নাম্বারের চেয়ে ফলাফলে বেশি নাম্বার পাওয়া যায়। পরবর্তীতে ফলাফল সংশোধন করা হয়েছে।”

এ বিষয়ে উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মিকাইল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে দুইটা সেমিস্টারের মার্ক চায় কৃষি বিভাগ। পরবর্তীতে জানতে পারি খাতার মার্কের সাথে টেবুলেটরের দেয়া মার্কে অনিয়ম পেয়েছে কৃষি বিভাগ।

তদন্ত কমিটির কাছেও মার্কের অনিয়মের প্রমাণ মিলেছে দাবি করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তদন্ত কমিটির এক সদস্য বলেন, “বেশ কিছু অনিয়ম পাওয়া গেছে। মার্ক টেম্পারিং অত্যন্ত গুরুতর অপরাধ। বেশ কিছু শিক্ষার্থীর ফলাফল অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পেয়েছে। মার্কের বৃদ্ধি এতোটায় যে সিজিপিএ ৩.৯ পার হয়ে গেলেও পরবর্তীতে তা পুনঃগনণার পরে ৩.৫ এর ঘরেও চলে এসেছে। 

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. একিউএম মাহবুব বলেন, আমি বিষয়টি জানার পরেই ফলাফল সংশোধন করতে বলি এবং ফলাফল সংশোধন করা হয়েছে। মার্ক টেম্পারিং এর এই বিষয়ে আমরা তদন্ত করে দেখছি।