বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা : বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী

102

বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত ‘৭ই মার্চের সশস্ত্র সংগ্রাম ও ২৬ই মার্চের স্বাধীনতা ঘোষণার একমাত্র অধিকার ছিল বঙ্গবন্ধুর’ শীর্ষক আলোচনা সভা ঢাকায় পানি ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান। সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ডা. এস এ মালেক।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী বলেন, ৭ই মার্চ তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বজ্রকণ্ঠে রচনা করেছিলেন রাজনীতির মহাকাব্য। সেই ভাষণ কোনো সাধারণ জনসভার ভাষণ ছিল না। এটি ছিল স্বাধীনতার মন্ত্রে উজ্জীবিত বাঙালি জাতির উদ্দেশ্যে জাতীয় মুক্তি তথা স্বাধীনতার লক্ষ্য অর্জনে বঙ্গবন্ধুর লড়াইয়ের চূড়ান্ত আহ্বান।

১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশেই মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল। বাঙালি জাতির মঙ্গলের জন্য তিনি তাঁর জীবন উৎসর্গ করে গেছেন। তিনি জন্ম না নিলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না। তিনি ছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা। তাঁর কারণেই আজ আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি, পেয়েছি স্বাধীনতা। আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশে পরিণত হতো। বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবার স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর নেতৃত্বে অচিরেই এ দেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় পরিণত হবে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপার্চায ডা. কামরুল হাসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসি বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক আ ব ম ফারুক এবং দেশ বরেণ্য বুদ্ধিজীবীগণ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।