বঙ্গবন্ধু খেলাধুলায়ও ছিলেন অনন্য : জাহিদ ফারুক

122
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনীতির ময়দানের অবিসংবাদিত ব্যক্তিত্ব। খেলাধুলায়ও ছিলেন অনন্য। তাঁর নেতৃত্বে সে সময় দেশের শীর্ষ ক্লাব ওয়ান্ডারার্স পেয়েছিল শিরোপার স্বাদ।
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনীতির ময়দানের অবিসংবাদিত ব্যক্তিত্ব। খেলাধুলায়ও ছিলেন অনন্য। তাঁর নেতৃত্বে সে সময় দেশের শীর্ষ ক্লাব ওয়ান্ডারার্স পেয়েছিল শিরোপার স্বাদ।

পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনীতির ময়দানের অবিসংবাদিত ব্যক্তিত্ব। খেলাধুলায়ও ছিলেন অনন্য। তাঁর নেতৃত্বে সে সময় দেশের শীর্ষ ক্লাব ওয়ান্ডারার্স পেয়েছিল শিরোপার স্বাদ। তিনি বাঙালি জাতির জনক, পথপ্রদর্শক ও মুক্তিদাতা একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক। বঙ্গবন্ধু আমাদের জন্য একটি সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন। যে স্বপ্ন তিনি বাস্তবায়ন করে যেতে পারেননি, কিন্তু একটি শক্ত ভিত রচনা করে গিয়েছিলেন।

বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। আজ বাংলাদেশ পৃথিবীর বুকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে সমাদৃত হয়েছে। বাংলাদেশ এখন আর তলাবিহীন ঝুড়ি নেই। আমাদের মাথাপিছু আয় বেড়ে হয়েছে ২৮২৪ ডলার। আজ আমরা স্বল্পআয়ের দেশে পৌছেছি। ২০৩০ সালের মধ্যে আমরা উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশের কাতারে গিয়ে পৌঁছাবো।

শনিবার, ১৪ মে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত আউটার স্টেডিয়ামে আয়োজিত “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্পকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট”, বালক (অনুর্ধ্ব-১৭) ও “বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্পকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট”, বালিকা (অনুর্ধ্ব-১৭) এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, সমৃদ্ধশালী কিংবা উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পৌঁছাতে হলে একটি সুষ্ঠু সমাজ দরকার। এই সুষ্ঠু সমাজ দরকার হলে খেলাধুলা, শারিরীক কশরত খুব দরকার। এর প্রেক্ষিতেই বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের শুরু। আসা করা যাচ্ছে, ১৭ বছরের নিচের কিশোর ছেলে রয়েছে তারা সবাই খেলাধুলার প্রতি উদ্বুদ্ধ হবে, আরো মনযোগী হবে। খেলাধুলার প্রতি মনযোগী হলে তোমরা লেখাপড়ার প্রতিও মনযোগী হবে। ভালোভাবে লেখাপড়া করে ৪১ সালের যোগ্য নাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়তে হবে। সর্বপরি বঙ্গবন্ধুর জীবনী থেকে শিক্ষা নিয়ে অনুপেরণা নিয়ে খেলার মাঠে,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং ভবিষতে কর্মক্ষেত্রে দেশের জন্য কাজ করতে হবে নারী পুরুষ উভয়কেই।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, যারা অলস জীবনযাপন করে তাদের ভিতরে খারাপ বুদ্ধিগুলো আসে। এজন্য শিশু-কিশোর-যুবকদের খেলাধুলা খুবই প্রয়োজনীয়, তাহলে খারাপ চিন্তা থেকে তোমরা দূরে থাকবে এরপর বাকী সময়টুকুতে লেখাপড়া করতে পারবে। বাংলাদেশকে সমৃদ্ধশালী দেশে পৌছাতে হলে আমাদের যুব সমাজকে সু-সংগঠিত হতে হবে একটা সুখী সমৃদ্ধ দেশ গড়তে হলে যুব সমাজকে সুস্থ থাকতে হবে এবং লেখাপড়ায় ভালো করতে হবে। বাংলাদেশ সমৃদ্ধশালী হওয়ার সাথে সাথে অনেক বড় বড় অফিস, কল কারখানা হবে যেখানে কর্মসংস্থানের সুযোগ থাকবে। যে সুযোগ সুবিধা গ্রহন করতে হলে নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে।

বরিশাল সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বরিশাল সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাইদুর রহমান রিন্টু, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব মাহমুদুল হক খান মামুন, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মধুসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন।