ফেনীর সোনাগাজীতে লোডশেডিং ও প্রচন্ড গরমে ৮০০ ব্রয়লার মুরগীর মৃত্যু

105
ফেনীর সোনাগাজীতে লোডশেডিং ও প্রচন্ড গরমে ৮০০ ব্রয়লার মুরগীর মৃত্যু
ফেনীর সোনাগাজীতে লোডশেডিং ও প্রচন্ড গরমে ৮০০ ব্রয়লার মুরগীর মৃত্যু

শেখ আশিকুন্নবী সজীব,ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর সোনাগাজীতে ভয়াবহ লোডশেডিং ও প্রচন্ড গরমে একটি পোল্ট্রি খামারের প্রায়  ৮০০ ব্রয়লার মুরগী মারা গেছে। এতে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন খামার মালিক নজরুল ইসলাম পলাশ।

বৃহস্পতিবার বিকালে সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের মধ্যম সুজাপুর গ্রামের খুরশিদ আলম ভূঁঞার বাড়ির খামারে এ ঘটনা ঘটে। ক্ষতিগ্রস্ত খামার মালিক ও এলাকাবাসী জানায়, নজরুল ইসলাম পলাশ গত বছর থেকে বাড়ির পাশে একটি খামারে ব্রয়লার মুরগী পালন করে আসছে। গত দুই দিন বুধ ও বৃহস্পতিবার প্রচন্ড গরমের মধ্যে ভয়াবহ লোডশেডিংয়ের কবলে পড়ে পুরো এলাকা।

পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে বিদ্যুতের জন্য বার বার ফোন দিয়ে কোন সাড়া পাননি ওই খামার মালিক। প্রতিটি মুরগী প্রায় দেড় থেকে দুই কেজি ওজনের। বিকাল তিনটার দিকে মুরগীগুলো চোখের সামনে একে একে মারা যায়। খামার মালিক নজরুল ইসলাম পলাশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বর্ধিত মূল্যে পোল্ট্রি খাদ্য খাইয়ে লাভের আশায় মুরগীগুলো খামারে লালন-পালন করেছে। কিন্তু প্রচন্ড গরমে ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে তার ৮০০ মুরগী মারা গেল। এতে তার অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। সামনের দিনে খামারটি পরিচালনা নিয়ে চোখে ঘোর অন্ধকার দেখছেন।

এ ব্যাপারে সোনাগাজী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম প্রকৌশলী সনৎ কুমার ঘোষ বলেন, গত দুই-তিন দিন যাবৎ জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ ফেল করেছিল। প্রচন্ড গরমের মধ্যে চাহিদার তুলনায় ৪৪শতাংশ বিদ্যুৎ পেয়েছি। এ ছাড়া ৩৩কেভি ভোল্টেজের মধ্যে দশ কেভি ভোল্টেজে নেমে যায়। যার ফলে চাহিদা মোতাবেক নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে বিঘ্ন ঘটেছে। খামারে মুরগীর মৃত্যুর সংবাদ তিনি পেয়েছেন।