প্রেমিকের সাথে ভিডিও কলে কথোপকথন, প্রেমিকার আত্মহত্যা

138

শফিকুল ইসলাম সুমন, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : গতকাল শুক্রবার মানিকগঞ্জের হরিরামপুরে এক তরুণী আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত একটার দিকে হরিরামপুর উপজেলার বয়ড়া ইউনিয়নের দাসকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমাইয়া আক্তার (১৮) দাসকান্দি গ্রামের মৃত কুরবান আলীর মেয়ে। ৬নং বয়ড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ড সদস্য কালিপদ রায় জানান, প্রেমঘটিত কারণে বৃহস্পতিবার রাতে সুমাইয়া আক্তার নামের মেয়েটি হয়তো আত্মহত্যা করেছে।

সুমাইয়ার বোন সালমা আক্তার জানান, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বাঘিয়া গ্রামের কেসমত আলীর ছেলে মোঃ সুমন হোসেনের (২২) সাথে দীর্ঘদিন ধরে সুমাইয়া আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পারিবারিকভাবে উভয় পক্ষই সুমাইয়া এবং সুমনের বিয়েতে রাজ থাকলেও সুমনের বাবা মো: কেসমত আলী যৌতুক দাবি করেন অথবা সুমনকে আগামী এক বছরের মধ্যে বিদেশে পাঠানোর খরচ দেয়ার শর্ত দেয়। সুমন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদেও বাড়ীতে এসে সুমাইয়া ও তার ভাই—বোনদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বাবার কথায় রাজি হতে বলেন বলে সুমাইয়ার বোন দাবি করেন। এর পর রাত ১টার দিকে মোঃ সুমন হোসেন সুমাইয়ার বোন সালমা আক্তারের মোবাইল ফোনে সুমাইয়ার গলায় ফাঁসের কথা জানান বলেও দাবি তার। তার দাবি, মৃত্যুর সময় সুমাইয়ার কানে হেডফোন ছিল। সুমাইয়া সুমনকে ভিডিও কলে রেখে গলায় ফাঁস নিয়েছে।

এ বিষয়ে হরিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মিজানুর ইসলাম শুক্রবার বিকেলে জানান, প্রেমঘটিত কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটতে পারে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।