পাটুরিয়ায় ফেরির জন্য গাড়ী নয়, গাড়ীর জন্য অপেক্ষায় ফেরি

186
পাটুরিয়ায় ফেরির জন্য গাড়ী নয় গাড়ীর জন্য ফেরি অপেক্ষায়
পাটুরিয়ায় ফেরির জন্য গাড়ী নয় গাড়ীর জন্য ফেরি অপেক্ষায়

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একুশ জেলার মানুষের যাতায়াতের নতুন এক দোয়ার উন্মোচন করেছে পদ্মা সেতু। চালু হয়েছে যান চলাচল। এর ফলে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে পারাপাররত যানবাহনের কোন চাপ নেই। নেই ভোগান্তির ছিটেফোঁটা। যানবাহনের অপেক্ষায় ঘাট এলাকাগুলোতে ফেরি গুলোকেই নোংর করে রাখা হয়েছে।

রবিববার দুপরে পাটুরিয়া ফেরী ঘাটে গিয়ে সরজমিনে দেখা যায়,  ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে নেই যাত্রীবাহী বাসের কোন সিরিয়াল। পুরো ট্রাক টার্মিনালটিই রয়ে গেছে ফাঁকা। ৫ নং ঘাটটিতেও নেই ব্যক্তিগত যানবাহনের কোন সাড়ি।

পাটুরিয়া-দৌলদিয়া নৌপথে ২১টি ফেরি দিয়ে যান চলাচল করছে। যানবাহনের চাপ না থাকায় বেশিরভাগ ফেরি ঘাট এলাকায় নোংর করে রাখা হয়েছে।

জসিম আহমেদ বাবলু নামের এক মোটরসাইকেল চালক বলেন, ঢাকা থেকে ঘাট পর্যন্ত আসলাম মহাসড়কেও কোন যানজট নেই। ঘাটের পরিস্থিতি একদমই স্বাভাবিক। পাটুরিয়া ঘাট এতটা সাদামাটা কখনো দেখি নাই। বিগত সময় গুলোতে মোটরসাইকেল নিয়ে ফেরিতে উঠতে গেল অনেক পারা-পারি করতে হতো। এমন শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি থাকলে আমাদের উপরের লোকজনের ভোগান্তি অনেক কমবে।

ফরিদপুরগামী মাইক্রোবাস এক চালক হোসেন আলী বলেন, পাটুরিয়া ঘাটের ইতিহাসে এমন চিত্র দেখি নাই। টিকিট নিয়ে সরাসরি ফেরিতে যাচ্ছি। কোন হয়রানি নাই।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক শাহ মোঃ খালেক নেওয়াজ বলেন, বিগত সময়ের চেয়ে ঘাট এলাকা স্বাভাবিক। একুশটি ফেরি দিয়ে যান পারাপার করা হচ্ছে। এখন বরং ঘাটে ফেরি যানবাহনের অপেক্ষায় থাকে।