নির্বাচনী ট্রেন কারও জন্য থেমে থাকবে না : তথ্যমন্ত্রী

123

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপিকে অংশ নিতে আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, নির্বাচনী ট্রেন কারও জন্য থেমে থাকবে না। দেশে যথা সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এ সময় লোডশেডিং ইস্যুতে বিএনপির হারিকেন মিছিলের বিষয়ে তিনি বলেন, তাদের (বিএনপির) মিছিল দেখে মনে হচ্ছে তাদের প্রতীক ধানের শীষের পরিবর্তে হারিকেন হয়ে গেছে।শনিবার(৩০ জুলাই)দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা ডিগ্রী কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের দীর্ঘ ১৮ বছর পর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আসলে বিএনপির মাঝে নির্বাচনি ভীতি শুরু হয়েছে। সেই ভীতি থেকে তারা নানান কথা বলছে।গত নির্বাচন যেমন কারও জন্য থেমে থাকেনি তেমনি এবারও থেমে থাকবে না। নির্বাচনি ট্রেন কারও জন্যই থেমে থাকবে না।তিনি বলেন,বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া বলেছিলেন আওয়ামী লীগ জোড়াতালি দিয়েও পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে পারবে না।কিন্তু শেখ হাসিনা তা নির্মাণ করে প্রমাণ করে দিয়েছেন।পদ্মা সেতু উদ্বোধন নিয়ে বিএনপি ষড়যন্ত্র করেছিল।ষড়যন্ত্র করে নির্মাণে বাধাগ্রস্ত করেতে পারেনি। উল্টো দেশের টাকায় পদ্মা সেতু হওয়াতে বিএনপি নেতাদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।তাদের মাথা নিচু হয়ে গেছে। অথচ পদ্মা সেতু হওয়ায় শেখ হাসিনা সরকার বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছেন।ঢাকা থেকে জলঢাকা আসার পথে রাস্তার দুই ধারে একটি কুঁড়েঘরও দেখলাম না। এখন আর কুঁড়েঘর নিয়ে কবিতা লেখা যাবে না। কবিতা লিখতে হলে পদ্মা সেতু নিয়ে লিখতে হবে।

সম্মেলনে হুঁশিয়ারি দিয়ে দলে বিশৃঙ্খলাকারীদের কোনো ঠাঁই হবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেন তথ্যমন্ত্রী। এর আগে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলন শুরু হয়। সে সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তথ্যমন্ত্রীসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক(রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত),উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কার্যকরী সদস্য সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া,সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট সফুরা বেগম রুমি,আবদুল আউয়াল শামীম ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কৃষিবিদ দেওয়ান কামাল আহমেদ ও প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ অ্যাডভোকেট সম্পাদক মমতাজুল হক। সম্মেলন শেষে রাতে অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা সভাপতি ও আবু সাইদ শামীমকে সাধারণ সম্পাদক করে তিন বছরের জন্য নতুন কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।