নারী প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে ফ্রান্স

129

দীর্ঘ ৩০ বছর পর ফ্রান্সে প্রধানমন্ত্রী হ‌তে যাচ্ছেন একজন নারী। সম্প‌তি অনু‌ষ্ঠিত দ্বিতীয় মেয়াদের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হ‌য়ে দেশটির প্রেসিডেন্টের আসনে বসেছেন এমানুয়েল মাখোঁ। তি‌নি ফ্রা‌ন্সের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এলিজাবেথ বোর্ন এর নাম ঘোষণা করেছেন।

এর আগে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী জেন ক্যাসটেক্স প্রেসিডেন্টের কাছে তার পদত্যাগপত্র হস্তান্তর করেন। এপ্রিলে পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর নতুন সরকার গঠনের পথ পরিষ্কার করতে মন্ত্রিসভায় রদবদলের অংশ হিসেবে এই বদল আনা হয়েছে বলে অনেকেই মনে করছেন।

২০২০ সালে আকস্মিক বাছাই হিসেবে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ পান জেন ক্যাসটেক্স। তার বিদায়ের ফলে জুনে গুরুত্বপূর্ণ পার্লামেন্ট নির্বাচনের আগে ম্যাক্রোঁ মন্ত্রিসভায় বদল আনার সুযোগ পেলেন।

পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর মধ্যপন্থী নেতা ম্যাক্রোঁর অভ্যন্তরীণ কর্মসূচি বাস্তবায়নে পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রয়োজন পড়বে। নতুন বামপন্থী জোটসঙ্গী এবং উগ্র ডানপন্থীরা তার কর্মসূচি আটকে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই জেন ক্যাসটেক্সকে বদলানোর গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো। এরইমধ্যে ম্যাক্রোঁ ইঙ্গিত দেন তিনি এই পদে এমন একজন নারী চান যিনি বামপন্থী এবং পরিবেশগতভাবে যার বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে।

নিজের দ্বিতীয় মেয়াদের প্রথমেই যেসব কর্মসূচির দিকে নজর দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ম্যাক্রোঁ দিয়েছেন তাতে এসব বৈশিষ্ট্যের প্রধানমন্ত্রী খুবই জরুরি। স্কুল, স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নের পাশাপাশি তিনি জলবায়ু সংকটকে অগ্রাধিকার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

৬১ বছর বয়সী নতুন প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বোর্নে একজন যোগ্য টেকনোক্র্যাট। তিনি ইউনিয়নগুলোর সঙ্গে সাবধানে দরকষাকষি করতে পারেন।

ফ্রান্সেরে সবশেষ নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন এডিথ ক্রেসন। ১৯৯১ সালের মে মাস থেকে ১৯৯২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত তিনি স্বল্প সময়ের জন্য এই দায়িত্ব পালন করেন। ওই সময়ে প্রেসিডেন্ট ছিলেন ফ্রাঙ্কোইস মিত্তারান্ড।

সূত্র: এএফপি