ঠুনকো অজুহাতে আলফাডাঙ্গা সরকারী কলেজের গাছ কর্তন

277
ঠুনকো অজুহাতে আলফাডাঙ্গা সরকারী কলেজের গাছ কর্তন
ঠুনকো অজুহাতে আলফাডাঙ্গা সরকারী কলেজের গাছ কর্তন

ফরিদপুর প্রতিনিধি : আলফাডাঙ্গা উপজেলায় অবস্থিত আলফাডাঙ্গা সরকারি কলেজের অফিসের সামনের দুটি বড় আমগাছ যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই ঠুনকো অজুহাতে বিক্রি করলেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ। গরমে ছায়া প্রদানকারী গাছ দুটি কাটায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকগণ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আলফাডাঙ্গা সরকারি কলেজের ভেতরে অফিস কক্ষের সামনে অবস্থিত বৃহদাকার দুটি পুরনো আম গাছ কেটে ফেলা হচ্ছে। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসেবে খোরশেদুল আলম দায়িত্ব গ্রহণের এক মাসের মধ্যেই যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই ঠুনকো অজুহাতে গাছ দুটি কেটে ফেলেন। শিক্ষার্থীরা ক্লাসের ফাঁকে ওই গাছের নিচে দাঁড়িয়ে বিশ্রাম নিত। এছাড়া গাছ দুটি কলেজের শোভাবর্ধনও করতো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী এবং কলেজের শিক্ষক জানান, প্রচণ্ড গরমে ছায়া প্রদান করতো গাছ দুটি। অথচ ঠুনকো অজুহাতে গাছ দুটি কেটে ফেলা হল।

এ ব্যাপারে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ খোরশেদুল আলম বলেন, গাছ দুটির পাশে কলেজের উন্মুক্ত ডায়াস (মঞ্চ)। ওই মঞ্চে কোন অনুষ্ঠান হলে গাছের কারণে স্থানাকুল হতো না। এজন্য শিক্ষক কাউন্সিলের মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক রেজুলেশন করে গাছ দুটি কাটা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আগের অধ্যক্ষই গাছ দুটি কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।