চট্টগ্রাম নগরীতে হঠাৎ উধাও গণপরিবহন

108
চট্টগ্রাম নগরীতে হঠাৎ উধাও গণপরিবহন
চট্টগ্রাম নগরীতে হঠাৎ উধাও গণপরিবহন

আবদুর রহিম, ডবলমুরিং, চট্টগ্রাম থেকে : মোহাম্মদ তোফায়েল সাহেব চাকরি করেন চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। সকালে নাস্তা করে কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য রাস্তায় বের হয়ে গণপরিবহন না দেখে হতবিহ্বল হয়ে পড়েন কারণ দেশে কোন হরতাল -ধর্মঘট না থাকা সত্বেও রাস্তা থেকে গণপরিবহন উধাও হয়ে যাওয়ার ব্যাপারটি প্রথমে বুঝতে পারেন নি। তোফায়েল সাহেবের মত হাজার হাজার কর্মস্থলে যাওয়া মানুষ চট্টগ্রাম নগরীর রাস্তায় গণপরিবহন সংকটে পড়ে দূর্ভোগে পড়েন। প্রখর রৌদ্রে গাড়ির জন্য দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায় সাধারণ যাত্রীদের কিন্তু তাতে কার কি আসে যায়?

চট্টগ্রামের পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা বলছেন, বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় রেখে দেশের বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে সরকার। কিন্তু রাতারাতি এ সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হয়নি। জ্বালানি তেলে গণপরিবহন চলে। গণপরিবহন সংশ্লিষ্ট কারো সঙ্গে কোনো আলাপ না করে সরকার চাইলে এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি বেলায়েত হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, সরকার বর্ধিত জ্বালানি মূল্যের সাথে গণপরিবহনের ভাড়াও সমন্বয় করে না দেওয়া পর্যন্ত আমরা গাড়ি বের করবো না।

এদিকে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় নগরীতে সিএনজি, রিকশাওয়ালারা তিনগুণ ভাড়া হাঁকাচ্ছে। সবকিছু মিলে ঘুম থেকে উঠে সাধারণ মানুষকেই দূর্ভোগের নতুন দিনটি শুরু করতে হলো।