গার্ডার চাপায় নিহত রুবেলকে স্বামী দাবি করলেন ৭ নারী (ভিডিও)

539

রাজধানীর উত্তরার জসীমউদ্‌দীন রোডে বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার চাপায় বিধ্বস্ত প্রাইভেটকারের ভেতর নিহত হন রুবেল হাসান (৫০)। সোমবার, ১৫ আগস্ট টক অব দ্য কান্ট্রি ছিল মর্মান্তিক ওই ঘটনা। এবার চাঞ্চল্যকর এক ঘটনা বের হয়ে এলো নিহত রুবেল হাসানকে ঘিরে। একজন কিংবা দুজন নয়, সাত-সাতজন নারী রুবেলকে স্বামী দাবি করেছেন। তারা প্রত্যেকেই হাসপাতালের মর্গে হাজির হয়েছেন রুবেলের লাশ নেয়ার জন্য।

সোমবার রাজধানীর উত্তরায় ক্রেন দিয়ে গার্ডার সরানোর সময় সেটি নিচের একটি প্রাইভেটকারের ওপর গিয়ে পড়ে। ওই ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ৫ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। তারা প্রত্যেকেই প্রাইভেটকারের ভেতর ছিলেন। এসময় আহত হন দুজন।

উত্তরার জসিমউদ্দীন রোডে র‍্যাপিড ট্রানজিট সিস্টেম (বিআরটি) প্রকল্পের এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের গার্ডার চাপায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এর আগে গত ১৫ জুলাই গাজীপুরে একই প্রকল্পের লঞ্চিং গার্ডার চাপায় একজন নিরাপত্তা কর্মী মারা যান। ওই দুর্ঘটনায় একজন শ্রমিক ও একজন পথচারীও আহত হন।

দুর্ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার সকালে নিহত পাঁচজনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নেয়া হয়। এসময় গার্ডার চাপায় নিহত রুবেলের মরদেহ নিতে মর্গে আসেন ৭ নারী। তাদের প্রত্যেকেই নিহত রুবেলকে স্বামী বলে দাবি করেন। তারা সবাই রুবেলের মৃতদেহ নিয়ে যেতে চান। এর ফলে রুবেলের মৃতদেহ হস্তান্তর করা নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়।

এদিন হাসপাতালের মর্গের সামনে নিহতদের আত্মীয়-স্বজনদের ভিড় লক্ষ্য করা যায়। অনেককেই কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায়। এর মধ্যেই সেখানে একে একে আসতে থাকেন রুবেলকে স্বামী দাবি করা নারীরা। নাম-পরিচয় গোপন রাখার শর্তে একজন দাবি করেন, রুবেল ৮টি বিয়ে করেছিলেন। তার ৮ স্ত্রীর মধ্যে মধ্যে ৭ জনই মর্গে এসেছেন স্বামীর মৃতদেহ নেয়ার জন্য। অবশ্য তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য পুলিশ কিংবা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

রুবেলকে স্বামী দাবি করা নারীরা জানান, রুবেলের একাধিক বিয়ের কথা তারা জানতেন না। তাদের মধ্যে একজন নারী অবশ্য জানান যে, কিছুদিন আগে তিনি রুবেলের একাধিক বিয়ের কথা জানতে পারেন। বিষয়টি জানার পর মামলাও দায়ের করেন। এখনও ওই মামলার শুনানি চলছে বলেও দাবি করেন ওই নারী।