কৃষককে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি খাদ্যমন্ত্রীর

81
কৃষককে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি খাদ্যমন্ত্রীর
কৃষককে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি খাদ্যমন্ত্রীর

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ধানের যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এই দামে ধান বিক্রি করলে কৃষক লাভবান হবে। খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করতে গিয়ে কোনো কৃষক যেন অসম্মানিত না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে। কৃষককে কোনোভাবে হয়রানি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন খাদ্যমন্ত্রী।

সুনামগঞ্জ জেলায় বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের বিষয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন মন্ত্রী।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষককে ধানের ন্যায্যমূল্য দিতে সরকার ধান কিনে থাকে। এসময় খাদ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের প্রান্তিক তালিকাভুক্ত কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের নির্দেশনা দেন মন্ত্রী। তিনি জানান, সরকারের পাশাপাশি মিল মালিকরাও এসময় ধান কেনেন। এ কারণে কৃষক ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে।

খাদ্যমন্ত্রী অহেতুক অবৈধভাবে ধান মজুদ করে সংকট সৃষ্টি না করার আহ্বান জানান মিল মালিকদের। তিনি বলেন, চালের দাম সহনীয় রাখতে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

মন্ত্রী জানান, খাদ্যশষ্যের ভান্ডার হিসেবে পরিচিত হাওর অঞ্চলে জমি পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় সংখ্যক পেডি সাইলো নির্মাণ করা হবে। এতে হাওর অঞ্চলে খাদ্য মজুদ ও সংরক্ষণ করা যাবে।