কুড়িগ্রামে আনসার-ভিডিপি’র উদ্দ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ”

114
কুড়িগ্রামে আনসার-ভিডিপি’র উদ্দ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ”
কুড়িগ্রামে আনসার-ভিডিপি’র উদ্দ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ”

২৪ জুন শুক্রবার সকাল ১০টায় কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় ও সকাল ১১টায় চিলমারী উপজেলার বন্যার্ত আনসার ও ভিডিপি সদস্য-সদস্যাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের পক্ষে আনসার ও ভিডিপি রংপুর রেঞ্জের পরিচালক মোঃ আব্দুস সামাদ, পিভিএমএস কর্তৃক বন্যার্ত আনসার ও ভিডিপি সদস্য-সদস্যাদের মাঝে উক্ত ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ত্রান বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা আনসার ও ভিডিপি’র জেলা কমান্ড্যান্ট (চলতি দায়িত্ব) মোঃ ইবনুল হক, উলিপুরের উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ সোলায়মান হোসেন, কুড়িগ্রাম সদরের উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ মোশাররফ হোসেন, চিলমারীর উপজেলা প্রশিক্ষিকা সাজেদা খাতুন, উলিপুরের উপজেলা প্রশিক্ষিকা জাহানুর ও উপজেলা প্রশিক্ষক মোঃ শরিফুল ইসলাম।

ত্রাণ বিতরণকালে পরিচালক মোঃ আব্দুস সামাদ, পিভিএমএস বলেন, “আনসার বাহিনী গণ মানুষের বাহিনী, সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থেকেই এই বাহিনী সেবা দিয়ে থাকে। বাহিনীর মহাপরিচালক তার নিজস্ব তহবিল হতে বন্যার্তদের সাহায্য প্রেরণ করেছেন। ইতোমধ্যে তিনি সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনা ও কুড়িগ্রাম জেলার প্রায় সাড়ে চার হাজার জন বন্যার্ত আনসার ও ভিডিপি সদস্য-সদস্যাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ বাবদ প্রায় ১৯ লক্ষ টাকা প্রেরণ করেছেন।

প্রত্যেক বন্যার্তকে চিড়া, মুড়ি, গুড়, লবন, মোমবাতি, খাবার স্যালাইন, হ্যালোজিন ট্যাবলেট ও দিয়াশলাই বিতরণ করা হচ্ছে। উক্ত সাহায্য আমরা আপনাদের নিকট সুষ্ঠুভাবে পৌছি দিচ্ছি। কুড়িগ্রাম জেলার ৯টি উপজেলার মধ্যে বন্যা কবলিত ৭টি উপজেলায় ৫৮৪জন বন্যার্ত আনসার-ভিডিপি সদস্য-সদস্যাদেরদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে।