কালিগঞ্জে প্রভাষক মাহমুদার বাড়ি আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত

111
কালিগঞ্জে প্রভাষক মাহমুদার বাড়ি আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত
কালিগঞ্জে প্রভাষক মাহমুদার বাড়ি আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত

মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক, কালিগিঞ্জ(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগরে গত রবিবার (১২ জুন) দিবাগত রাত্রে আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে নওয়াবেঁকী মহাবিদ্যালয়ের বাংলা প্রভাষক মাহমুদা পারভীনের দ্বিতল ভবনের একটি কক্ষ। ঘটনাটি ঘটেছে মাহমুদা খাতুনের পৈত্রিক নিবাস কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর (বালিয়াডাংগা) গ্রামে।

মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মুনসুর আলী সরদারের একমাত্র কন্যা প্রভাষক মাহমুদা পারভীনের পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত ৪ কক্ষ বিশিষ্ট দ্বিতল ভবনটির একটি কক্ষ আগুনে পুড়ে সম্পূর্ণরুপে ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে।

তবে স্থানিয়দের সহযোগীতায় ফায়ার সার্ভিস কালিগঞ্জ ইউনিট দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনায় অন্য কক্ষগুলো তেমন ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে।

মাহমুদা পারভীন জানান, তিনি স্ব-পরিবারে রাজধানী ঢাকাতে অবস্থান করছিলেন। বাড়িটি বাইরে থেকে তালাবদ্ধ ছিল কিন্তু  নিচতলার পুড়ে যাওয়া কক্ষের জানালা খোলা ছিল। রাত্র আনুমানিক ২ টা ৩০ মিনিটের দিকে প্রতিবেশী রেজাউল সরদার ও তার স্ত্রী ময়না খাতুন নিচতলার কক্ষে আগুনের সুত্রপাত দেখতে পান এবং তাদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে ফায়ার সার্ভিস কালিগঞ্জ ইউনিটকে খবর দিলে তারা ৩ টার দিকে দূর্ঘটনা স্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয়। তবে ততক্ষনে একটি কক্ষ সম্পূর্ণ রুপে পুড়ে মূল্যবান আসবাবপত্র সহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

কালিগঞ্জের ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তারা বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন।

তবে স্থানীয় বাসিন্দা বুরুজ সরদার সহ অনেকে বলেন, আগুন লাগার খবর পেয়ে যারা প্রথম দিকে এসেছে তারা সবাই জানালার কাছেই আগুনের তিব্রতা লক্ষ্য করেছেন। এ কারনে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত নাকি শত্রুতা বসত বাইরের খোলা জানালা দিয়ে কেউ আগুন লাগিয়ে দিয়েছে তা খতিয়ে দেখতে হবে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।