এশা ও তারাবি নামাজের ওয়াক্ত কতক্ষণ থাকে?

277
তারাবির নামাজ সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ যা ওয়াজিবের কাছাকাছি। এই নামাজ আদায় না করলে অবশ্যই পাপের ভাগীদার হতে হবে।
তারাবির নামাজ সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ যা ওয়াজিবের কাছাকাছি। এই নামাজ আদায় না করলে অবশ্যই পাপের ভাগীদার হতে হবে।

এশার নামাজের ওয়াক্ত হলো মধ্যরাত পর্যন্ত। কিন্তু মধ্যরাত পার হয়ে গেলেও এশার নামাজ আদায় করা যায়। তবে মধ্যরাতের পর এশার নামাজ পড়া মাকরুহ।

কেউ যদি যু‌ক্তিযুক্ত কারণে মধ্যরাতের ভেতর এশার নামাজ আদায় করতে সক্ষম না হন সেক্ষেত্রে ‌তি‌নি এশার নামাজ আদায় করার জন‌্য সময় পাবেন সুবহে সাদিকের আগ পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে তিনি এশার নামাজ পড়লে নামাজ আদায় হয়ে যাবে, তবে মাকরুহের সঙ্গে।

অপরদিকে তারাবির নামাজের সময় হলো এশার নামাজের পর থেকে ফজরের নামাজের আগ পর্যন্ত। পবিত্র রমজান মাসের গুরুত্বপূর্ণ সুন্নতগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো তারাবির নামাজ।

হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত রাসূল (সা.) ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি ইমানের সঙ্গে সাওয়াবের উদ্দেশ্যে রমজানে তারাবির নামাজ আদায় করেন তার অতীতের গুনাহগুলো আল্লাহপাক ক্ষমা করে দেবেন। (বুখারি শরিফ)

রমজান মাসে এশার ফরজ ও সুন্নত নামাজের পর এবং বিতর নামাজের আগে তারাবির নামাজ আদায় করতে হয়। সাধারণ নফল ও সুন্নতের চেয়ে অধিকতর মর্যাদাপূর্ণ তারা‌বির নামাজ। গুরুত্বের দিক থেকে তারাবির নামাজ সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ যা ওয়াজিবের কাছাকাছি। এই নামাজ আদায় না করলে অবশ্যই পাপের ভাগীদার হতে হবে।