নতুন সোশ্যাল মিডিয়া আনছেন ইলন মাস্ক

208
নতুন সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে আসার ঘোষণা দিলেন মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্ক
নতুন সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে আসার ঘোষণা দিলেন মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্ক

রকেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্সের কর্ণধার ইলন মাস্ক। টেসলা, পেপ্যালসহ আরও বেশ কয়েকটি বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে মার্কিন এই ধনকুবেরের নাম। এবার নতুন এক সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে আসার ঘোষণা দিলেন ধনাঢ্য এই ব্যবসায়ী।

এখন দেখার বিষয় হলো, ইলন মাস্ক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম নিয়ে এলে তা তুমুল জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা জাকারবার্গকে কতটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয়।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার তীব্র সমালোচনা করার দুদিনের মাথায় এক টুইটার বার্তায় ইলন মাস্ক বলেন, আমার নতুন সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের বাকস্বাধীনতাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আমি বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।

পরে টুইটারে একটি ভোটাভোটিতেও অংশ নেন ইলন মাস্ক। টুইটার বাকস্বাধীনতার নীতি মেনে চলে কিনা- এই বিষয়ে নেতিবাচক অবস্থানের কথা জানান মাস্ক। টুইট করে বলেন, এই ভোটের ফলাফল খুব গুরুত্বপূর্ণ। সতর্কতার সঙ্গে ভোট দিন।

উল্লেখ্য, ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াগুলোর বিরুদ্ধে বাক স্বাধীনতা হরণের অভিযোগ নতুন নয়। সম্ভবত এই সুযোগটি কাজে লাগিয়েই অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াকে টেক্কা দেওয়ার পরিকল্পনা এঁটেছেন ঝানু ব্যবসায়ী ইলন মাস্ক। ধারণা করা হচ্ছে, ইলন মাস্কের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারকারীদের অনেক বেশি বাক স্বাধীনতা নিশ্চিত করবে।

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি এখন ইলন মাস্ক। তিনি আমাজনের সাবেক সিইও জেফ বেজোসকেও পেছনে ফেলে দিয়েছেন। ২০২৪ সালের মধ্যে সম্ভবত তিনিই হতে চলেছেন বিশ্বের প্রথম ট্রিলিয়নিয়ার। তার মানে, আর মাত্র দুই বছরের মাথায় তার ধন-সম্পদের আর্থিক মূল্যমান হবে এক ট্রিলিয়ন ডলার।