Home খবর আন্তর্জাতিক এক রাতের জন্য কর্মচারীর স্ত্রী চেয়ে মামলার প্যাঁচে বস (ভিডিও)

এক রাতের জন্য কর্মচারীর স্ত্রী চেয়ে মামলার প্যাঁচে বস (ভিডিও)

গোকুল প্রসাদ। উত্তরপ্রদেশে বিদ্যুৎ বিভাগে লাইনম্যান হিসেবে চাকরি করতেন। বাড়ি থেকে কর্মস্থল দূরে হওয়ায় বদলির সুপারিশ নিয়ে তিনি প্রায়ই যেতেন তার বস জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার নগেন্দ্র প্রসাদের কাছে। হঠাৎ একদিন বস বলে বসেন, বদলি চাইলে এক রাতের জন্য বউকে পাঠিয়ে দিতে হবে।

বসের কথা হজম করতে না পেরে প্রতিবাদ হিসিবে নিজের জীবনই দিয়ে দিয়েছেন গোকুল প্রসাদ। আর বস ফেঁসে গেছেন আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায়।

বসের মুখে স্ত্রীকে নিয়ে অসম্মানজনক কথা মানতে পারেননি লাইনম্যান গোকুল। ক্ষমতাবান বসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করারও সুযোগ ছিল না তার। তাই শেষমেশ নিজের জীবন দিয়েই প্রতিবাদের সিদ্ধান্ত নেন গোকুল। বসকে ফাঁসিয়ে দিতে বসের অফিসের সামনেই নিজের গায়ে ডিজেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এই ঘটনায় প্রাথমিকভাবে নগেন্দ্র ছাড়াও বিদ্যুৎ বিভাগের এক কর্মচারীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি আত্মহত্যায় প্ররোচনারও মামলা হয়েছে।

এদিকে গোকুলের মৃত্যুর পর তার স্ত্রী এক ভিডিওতে গুরুতর অভিযোগ তোলেন নগেন্দ্র ও তার এক সঙ্গীর বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিগত তিন বছর ধরে নিয়মিত তারা গোকুলকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করে এসেছেন। গোকুলের স্ত্রীকে কুপ্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে।

এসব কারণে গোকুল একটা সময়ে বিষণ্নতায় ভুগতে শুরু করেন। নিয়মিত ওষুধও খেতে হতো তাকে। কিন্তু তারপরও তারা তাকে ছাড়েনি। সর্বশেষ তাকে আলিগঞ্জে বদলি করা হয়। কিন্তু সেখান থেকে বাড়িতে যাতায়াতে সমস্যা হয় বলে তিনি বাড়ির কাছে বদলির সুপারিশ করতে যান নগেন্দ্রর কাছে। তখন তাকে বলা হয়, বদলি চাইলে এক রাতের জন্য স্ত্রীকে পাঠিয়ে দিতে হবে।

গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার পরও কেউ গোকুলকে বাঁচানোর চেষ্টা করেনি বলেও অভিযোগ তুলেছেন নিহত গোকুলের স্ত্রী।

Exit mobile version