ইউপি চেয়ারম্যানের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

80
প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭১টি করে গাছ রোপন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন নড়াইলের খাশিয়াল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিএম বরকত উল্লাহ। মহান মুক্তিযুদ্ধকে স্মরণ করে এ ধরণের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। এছাড়া একটি সড়কে লাগিয়েছেন ১৯৭১টি গাছ। রোপনকৃত গাছের মধ্যে রয়েছে-ফলদ, ওষুধি ও শোভাবর্ধনকারী গাছ।
প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭১টি করে গাছ রোপন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন নড়াইলের খাশিয়াল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিএম বরকত উল্লাহ। মহান মুক্তিযুদ্ধকে স্মরণ করে এ ধরণের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। এছাড়া একটি সড়কে লাগিয়েছেন ১৯৭১টি গাছ। রোপনকৃত গাছের মধ্যে রয়েছে-ফলদ, ওষুধি ও শোভাবর্ধনকারী গাছ।

ফরহাদ খান, নড়াইল থেকে : প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭১টি করে গাছ রোপন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন নড়াইলের খাশিয়াল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিএম বরকত উল্লাহ। মহান মুক্তিযুদ্ধকে স্মরণ করে এ ধরনের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। এছাড়া একটি সড়কে লাগিয়েছেন ১৯৭১টি গাছ। রোপনকৃত গাছের মধ্যে রয়েছে ফলজ, ওষুধি ও শোভাবর্ধনকারী গাছ।

সরকারি অর্থায়নে নয়, ব্যক্তিগত ও বন্ধুদের আর্থিক সহযোগিতায় এসব গাছ লাগিয়েছেন নড়াইলের নড়াগাতী থানার খাশিয়াল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি নড়াইল জেলা শাখার সভাপতি বিএম বরকত উল্লাহ।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) সকাল থেকে এ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এক সঙ্গে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ।

প্রবীর কুমার রায়ের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বৃক্ষরোপনের গুরুত্ব তুলে বক্তব্য দেন-খাশিয়াল ইউপি চেয়ারম্যান বিএম বরকত উল্লাহ, বড়দিয়া কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোল্যা সাখাওয়াত হোসেন, ডাক্তার জগদীশ চন্দ্র সরকার, জনতা ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক নিরঞ্জন দাশ ঝন্টু, দি পাটনা একাডেমির সাবেক প্রধান শিক্ষক মোল্যা শাহাদত হোসেন, খাশিয়াল আদর্শ বিদ্যাপীঠের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মফিজুর রহমান, বড়দিয়া কলেজের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপক মৃণাল কান্তি বিশ্বাস, শান্তি কুমার অধিকারী, বড়দিয়া মুন্সী মানিক মিয়া ডিগ্রি কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য শিমুল মোল্যাসহ অনেকে।

বক্তারা বলেন, খাশিয়াল ইউনিয়নের প্রতিটি ওর্য়াডে এ ধরণের বৃক্ষরোপন প্রশংসার দাবিদার। তবে যত্ন করে গাছগুলোকে বড় করতে হবে। সুস্থ জীবনযাপনের ক্ষেত্রে গাছের বড় ভূমিকা রয়েছে।

চেয়ারম্যান বিএম বরকত উল্লাহ বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধকে স্মরণ রেখে বড়দিয়া-কালিয়া সড়কের খাশিয়াল ইউনিয়নের সীমানা পর্যন্ত ১৯৭১টি ফলদ, ওষুধি ও ফুলের চারা রোপন করছি। এছাড়া ইউনিয়নের নয়টি ওয়ার্ডের ৭১টি পরিবারের মাঝে একটি করে ফলদ ও ফুলের চারা বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া ওয়ার্ডের প্রতিটি সড়কে বৃক্ষরোপন করা হচ্ছে। আশা করছি, সবাই যত্ন করে গাছগুলো বড় করবেন।