আনোয়ারায় অধিগ্রহণকৃত জমির ন্যায্য মূল্য না পেয়ে মানববন্ধন

108

রানা সাত্তার, চট্টগ্রাম থেকে : আনোয়ারা উপজেলায় বারশত ইউনিয়নে গ্যাস পাইপ লাইনের জন্য অধিগ্রহণকৃত জমির ন্যায্য মূল্য পাওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করছে ভূমি মালিক ও এলাকাবাসী।

সম্প্রতি উপজেলার বারশত ইউনিয়নের বোয়ালিয়া এলাকায় চলমান গ্যাস পাইপ লাইনের প্রকল্পের উপর এই মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।এসময় ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিক ও স্থানীয়রা ভূমি দস্যু ও সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে প্রতিবাদমূলক বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড বহন করেন।

এসময় সমাবেশে বক্তারা বলেন, এলাকার কালো সিন্ডিকেট নামে পরিচিত আলোচিত ইয়াবা কারবারি, একাধিক মামলার আসামি এবং ভূমিদস্যুরা পাওয়া বুঝিয়ে না দিয়ে এলাকার সহজ-সরল মানুষদের জায়গা হাতিয়ে নিচ্ছে। আমরা এলাকাবাসী যাতে সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মি না হয় সেই বিষয়ে মাননীয় ভূমি মন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

সমাবেশে সাবেক ছাত্র নেতা আমিনুল হক চৌধুরী, হাজী মোহাম্মদ ইউনুছ, মুক্তিযুদ্ধ সংসদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুকতার আহমদ চৌধুরীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ আনোয়ারার বারশত
ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ না পেয়ে আবছার(৪০) নামে এক যুবক বিষপান করেন।সে ওই বারশত বোয়ালিয়া গ্রামের মৃত রেনু মিয়ার ছেলে।

‘চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা পর্যন্ত পাইপলাইনে জ্বালানি তেল পরিবহন’ শীর্ষক এ প্রকল্পটি ২০১৬ সালের অক্টোবরে একনেক-এ পাস হয়। তখন প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছিল ২০২০ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। তবে নানা কারণে প্রকল্প বাস্তবায়নে তেমন অগ্রগতি হয়নি।

এখন প্রকল্পের মেয়াদ ২০২২ সাল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। প্রকল্পের জন্য ১৯টি উপজেলার ৪৩৭ একর জমি অধিগ্রহণের কথা বলা হয়েছে।