আজব কান্ড! চুয়াডাঙ্গায় মানবশিশুর কামড়ে গোখরা সাপের মৃত্যু (ভিডিও)

803

মাঝে-মধ্যেই সাপের কামড়ে মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় পত্রিকার পাতায়। তবে এবার সম্পূর্ণ উল্টো খবর জানা গেলো। সাপের কামড়ে মানুষ নয়, উল্টো মানুষের কামড়ে মারা গেছে সাপ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে চুয়াডাঙ্গায়। মাত্র এক বছর বয়সী এক মানবশিশু কামড়ে মেরে ফেলেছে একটি বিষধর গোখরা সাপের বাচ্চাকে।

মঙ্গলবার, ৭ জুন সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার উজলপুর গ্রামের বিলপাড়ায় ঘটেছে এই আজব ঘটনা। যে শিশুটির কামড়ে সাপ মরে গেছে তার নাম জান্নাতুল ফেরদৌস। মেয়ে শিশুটির বাবার নাম রিয়াদুল ইসলাম, মায়ের নাম শিলা খাতুন। তারা উজলপুর গ্রামের বাসিন্দা।

ঘটনার পরপরই দ্রুত শিশুটিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাকে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ২৪ ঘন্টার জন্য পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তবে চিকিৎসক জানিয়েছেন, শিশুটির অবস্থা শঙ্কামুক্ত।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মাহবুবুর রহমান মিলন জানান, শিশুটির সঙ্গে সাপটিও আনা হয়। সাপটি মৃত অবস্থায় ছিল। শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত। ২৪ ঘন্টা পার হওয়ার পর তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। আপাতত তাকে পর্যবেক্ষণ রাখা হয়েছে।

ঘটনা প্রসঙ্গে শিশু জান্নাতুলের মা শিলা খাতুন জানান, মঙ্গলবার সকালে জান্নাতুল তার চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে ঘরে ভেতর খেলা করছিল। খেলতে খেলতে তারা দুজনই খাটের নিচে ঢুকে পড়ে। খাটের নিচে সাপের বাচ্চা দেখতে পেয়ে সেটিকে হাত হাত দিয়ে ধরে জান্নাতুল। পরে সাপটির শরীরের দুটি স্থানে কামড়ে দেয় সে। তার কামড়ে মরে যায় সাপের বাচ্চাটি। এরপর সাপরে বাচ্চাটি হাতে নিয়ে খাটের নিচ থেকে বের হয়ে আসে জান্নাতুল। সঙ্গে সঙ্গে সাপটিসহ জান্নাতুলকে নিয়ে যাওয়া হয়। মৃত সাপটি ডাক্তারকে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান শিলা খাতুন।