আগামী মাসে ১১০ টাকায় প্রতি লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি হবে যেখানে (ভিডিও)

177

সয়াবিন তেলের আকাশছোঁয়া দামে দিশেহারা দেশের মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত শ্রেণীর খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। নিত্যপ্রয়োজনীয় এই ভোজ্যতেল না কিনেও উপায় নেই তাদের। সরকারের বেঁধে দেওয়া মূল্য অনুযায়ী দেশের বাজারে এখন প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৯৮ টাকায়। ভোজ্যতেলের অগ্নিমূল্যে রীতিমতো নাভিশ্বাস উঠেছে স্বল্প আয়ের মানুষদের। তেল কিনতে নুন ফুরায় অবস্থা তাদের। এর মধ্যেই স্বস্তির খবর দিয়েছে টিসিবি। আগামী জুন মাস থেকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১১০ টাকায় বিক্রি করবে বলে জানিয়েছে টিসিবি।

টিসিবি বা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ হলো বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি শাখা। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে দেশের খাদ্য ঘাটতি মেটানোর লক্ষ্যে ১৯৭২ সালে যাত্রা শুরু করে টিসিবি। ১৯৯৬ সালে টিসিবির কাঠামোগত সংস্কার করে তৎকালীন সরকার।

এখন পর্যন্ত বিভিন্ন জরুরি প্রয়োজনে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সুনাম অর্জন করেছে সরকারি প্রতিষ্ঠানটি। জরুরি প্রয়োজনে বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সামগ্রী আমদানি করে টিসিবি। অনেক সময় পণ্য রপ্তানির কাজও করে প্রতিষ্ঠানটি।

বিভিন্ন সময়ে স্বল্পমূল্যে পণ্য খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব পালন করে প্রশংসিত হয়েছে টিসিবি। এরই ধারাবাহিকতায় এবার সয়াবিন তেল নিয়ে সাধারণ মানুষের চরম দুঃসময়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এর আগেও ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল বিক্রি করেছে টিসিবি। সেই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সম্প্রতি জানানো হয় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে। ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল বিক্রির কার্যক্রম সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে আগামী জুন মাস থেকে এক কোটি কার্ডধারী পরিবারের কাছে একই দামে তেল বিক্রি করবে টিসিবি।

শনিবার, ৭ মে গণমাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ। এসময় তিনি বলেন, আগামী জুন মাস থেকে আমরা এক কোটি কার্ডধারী পরিবারের কাছে একই দামে সয়াবিন তেল বিক্রি করবো। সরকার টিসিবির মাধ্যমে সরাসরি সয়াবিন তেল আমাদানি করার পরিকল্পনা করেছে। বিদেশে বাংলাদেশ মিশনগুলোর সঙ্গে রাষ্ট্র মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সয়াবিন তেল ক্রয় করতে যোগাযোগ করা হয়েছে।

সম্প্রতি বিশ্ব বাজারে সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার পর থেকে সরকার দেশবাসীকে সর্বনিম্ন মূল্যে এই তেল সরবরাহ নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে বলেও জানান বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিন তেলের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ৫ মে সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ করে দেয় বাংলাদেশ ভেজিটেবল ওয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনসপতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৩৮ টাকা বাড়িয়ে ১৯৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এছাড়া প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেলের দাম ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৮০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়।