আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখলের জন্য পেছনের দরজা ব্যবহার করেনি : প্রধানমন্ত্রী

আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখলের জন্য পেছনের দরজা ব্যবহার করেনি : প্রধানমন্ত্রী
আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখলের জন্য পেছনের দরজা ব্যবহার করেনি : প্রধানমন্ত্রী

ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ক্ষমতা দখলের জন্য কখনোই পেছনের দরজা ব্যবহার করেনি আওয়ামী লীগ। সবসময় নির্বাচনের মাধ্যমেই দলটি রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শনিবার, ৭ মে গণভবনে আয়োজিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এমন মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ভোটের মাধ্যমেই ক্ষমতায় এসেছি। আওয়ামী লীগ কখনো পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসেনি। এটি কোনো মিলিটারি ডিক্টেটরের পকেট থেকে তৈরি করা সংগঠনও নয়। আজ নির্বাচনে যতটুকু উন্নতি হয়েছে সেটা আওয়ামী লীগই করেছে।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, স্বচ্ছ ব্যালট বক্স, ছবিসহ ভোটার তালিকা এবং ইভিএম আমাদেরই দাবি ছিলো যাতে মানুষের ভোটের অধিকার বলবৎ থাকবে। মানুষ যদি আমাদের ভোট দিতে না চায়, দেবে না। আমরা আসবো না ক্ষমতায়। কিন্তু জনগণের ভোট প্রয়োগ সত্ত্বেও অতীতে বারবার চক্রান্ত করে আওয়ামী লীগকে দেশ পরিচালনা থেকে দূরে রাখা হয়েছে। শক্ররা কখনো ক্ষতি করতে পারে না, যদি ঘরের শক্র বিভীষণ না হয়। এটাই বাস্তবতা। দুঃখজনক হলেও আওয়ামী লীগের ক্ষেত্রে এটা সবসময় দেখা গেছে।

ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বারবার ক্ষমতায় আনার জন্য দলের পক্ষ থেকে দেশবাসীকে ধন্যবাদও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগকে মাটি ও মানুষের সংগঠন উল্লেখ করে দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, এই সংগঠন মাটি ও মানুষের জন্যই কাজ করে। তা আজকে প্রমাণিত।

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, পঁচাত্তরে জাতির পিতাকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান আর্মি রুলস এবং সংবিধান লঙ্ঘন করে ক্ষমতা দখল করে এদেশে ভোট কারচুপির সংস্কৃতি শুরু করে। এভাবে বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে সবসময় ছিনিমিনি খেলা হয়েছে।