অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে আরো শাণিত করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী

108

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বাংলা নববর্ষ অসাম্প্রদায়িকতা ও বাঙালি জাতীয়তাবাদের পরিচায়ক। এ দিনটিতে সে চেতনাকে আরো শাণিত করতে হবে। আমরা চাই বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে আরো মাথা উঁচু করে চলুক। সেজন্য অসাম্প্রদায়িকতা ও ভ্রাতৃত্ববোধকে শাণিত করে বাংলাদেশের সম্মান ও মর্যাদাকে আরো উন্নীত করতে হবে।

আজ নেদারল্যান্ডসের আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশনে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে বাংলা নববর্ষ উদ্যাপন অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী ভার্চুয়ালি এসব কথা বলেন। এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘সবুজ নগর গড়ে তোলা’।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষিসচিব মোঃ সায়েদুল ইসলাম। এ সময় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ রুহুল আমিন তালুকদার, হাসানুজ্জামান কল্লোল, ‌ওয়াহিদা আক্তার, বলাইকৃষ্ণ হাজরাসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়াজ হামিদুল্লাহ, মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বিভিন্ন সংস্থাপ্রধান উপস্থিত ছিলেন।

নেদারল্যান্ডসের আলমেয়ারে আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশনে (ফ্লোরিয়েড এক্সপো-২০২২) সরকারিভাবে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করছে বাংলাদেশ। ৬ মাসব্যাপী এ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে আজ, উদ্বোধন হয়েছে গতকাল। বাংলাদেশসহ প্রায় ৩৩টি দেশ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করছে।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশন প্রতি দশকে একবার নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত হয়। এবার বসেছে প্রদর্শনীর ৭ম আসর। এবারের প্রদর্শনীটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারণ ফ্লোরিয়েড এক্সপোর হিসেবে ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীর ৬৮% মানুষ নগরে বাস করবে। নগরকে কীভাবে আরো সবুজ, সুন্দর ও বসবাসযোগ্য করা যায় সে বিষয়ে উদ্ভাবন ও গ্রিন সল্যুশনস এই এক্সপোতে প্রদর্শিত হবে।
এক্সপোতে বাংলাদেশ নিজেদের উদ্ভাবন ও গ্রিন সল্যুশনস বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবে। পাশাপাশি অন্যান্য দেশের প্রযুক্তি, উদ্ভাবন ও জ্ঞান-অভিজ্ঞতা জানার ও তা বিনিময়ের সুযোগ তৈরি হবে।

এ বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, এ এক্সিবিশনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের মর্যাদা ও সম্মান আরো নতুন মাত্রায় উন্নীত হবে।